স্যালাইনের কৃত্রিম সংকট রোধে অভিযান চালাবে ভোক্তা অধিদফতর

২১ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ১২:৪৭ পিএম | আপডেট: ০৭ ডিসেম্বর ২০২৩, ০৯:২৬ এএম


স্যালাইনের কৃত্রিম সংকট রোধে অভিযান চালাবে ভোক্তা অধিদফতর
ছবি সংগৃহিত

জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের মহাপরিচালক এ এইচ এম সফিকুজ্জামান বলেছেন, সারা দেশে ডেঙ্গু রোগী বেড়ে যাওয়ায় মূল্য বৃদ্ধিসহ স্যালাইনের কৃত্তিম সংকট তৈরি করা হয়েছে। এমনিতে কোনও সংকট নেই। কোম্পানিগুলো ২৪ ঘণ্টা উৎপাদন করছে। সংকট হওয়ার কোনও কারণ নেই। তবে কিছু ব্যক্তির কারণে প্রতিষ্ঠানগুলোকে কাঠগড়ায় দাঁড় করানো হচ্ছে।

বুধবার (১৩ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর কাওরান বাজারে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের সভা কক্ষে আয়োজিত এক আলোচনায় সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

স্যালাইনের মূল্য ও সরবরাহ স্বাভাবিক রাখার লক্ষ্যে উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান, পাইকারি, খুচরা বিক্রেতা ও সংশ্লিষ্টদের অংশগ্রহণে এই মতবিনিময় সভার আয়োজন করা হয়।
এ এইচ এম সফিকুজ্জামান বলেন, ‘আগামীকাল সারা দেশে অভিযান চালানো হবে। এ বিষয় কোনও অনিয়ম পাওয়া গেলে আমরা ব্যবস্থা নেবো। স্যালাইনের গায়ে যে সর্বোচ্চ খুচরা মূল্য দেওয়া আছে, তার চেয়ে এক টাকাও বেশি বিক্রি করা যাবে না। আমি স্পষ্টভাবে এটি সংশ্লিষ্টদের জানিয়ে দিতে চাই। এরপরও যদি বেশি দামে স্যালাইন বিক্রি হয়, তাহলে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেবো আমরা।’

স্যালাইনের মূল্য নিয়ে কোথায় সমস্যা তা চিহ্নিত করতে হবে জানিয়ে মহাপরিচালক বলেন, ‘স্যালাইনের গায়ে যেটা লেখা আছে সেটা সর্বোচ্চ খুচরা মূল্য। এর বাইরে এক টাকাও বেশি বিক্রি করা যাবে না।’

তিনি বলেন, ‘আমরা আজ স্যালাইন সংশ্লিষ্ট সবাইকে সঙ্গে নিয়ে বসেছি। আপনাদের কথা শুনবো, তবে কৃত্রিম সংকটের কথা বলে বাড়তি দাম নেওয়া যাবে না। স্যালাইনের সোর্স আমাদের ফার্মাসিউটিক্যাল কোম্পানিগুলোই। স্যালাইন তো আর ভ্যানে বিক্রি হয় না। ডিস্ট্রিবিউশন চেইনের মাধ্যমে ফার্মেসিতে বিক্রি হয়। এটি সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রিত। এটা কিন্তু ডাব বা কাঁচা মরিচ না। খুচরা মূল্য যা লেখা আছে তাই বিক্রি করতে হবে। যতক্ষণ মজুত আছে ততক্ষণ সেই দামেই বিক্রি করতে হবে। স্যালাইন কম আছে আর চাহিদা বেশি আছে এই সুযোগে দাম বাড়ানো যাবে না। আইন অনুযায়ী ভোক্তা প্রতারিত হলে বা তার কাছ থেকে অতিরিক্ত মুনাফা আদায় করা হলে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া আমাদের দায়িত্ব।’

একদিকে দেশব্যাপী প্রাণঘাতী ডেঙ্গুর ভয়াবহ থাবা, অন্যদিকে টাইফয়েড বেড়ে যাওয়ায় স্যালাইনের চাহিদা অনেক বেড়ে গেছে। আর চাহিদা বেড়ে যাওয়ায় ফার্মাসি তো বটেই, সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালগুলোতেও দেখা দিয়েছে স্যালাইন সংকট। ৮০ টাকা দামের সাধারণ স্যালাইন খোলাবাজারে এখন বিক্রি হচ্ছে ৪০০ টাকায়। এর পরও স্যালাইন জোগাড় করতে বেগ পেতে হচ্ছে।

বছর তিনেক আগেও সরকারি প্রতিষ্ঠান জনস্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটে (আইপিএইচ) মাত্র ৪২ টাকায় স্যালাইন পাওয়া যেত। সেখানে এখন উৎপাদন বন্ধ। এ কারণে স্থায়ীভাবে বিকল হওয়ার পথে প্রায় ৬শ কোটি টাকার যন্ত্রপাতি। অভিযোগ রয়েছে, বেসরকারি কোম্পানিগুলোকে সুবিধা দিতে প্রতিষ্ঠানটি কৌশলে বন্ধ করে দেওয়া হয়। ফলে বর্তমানে বিদেশ থেকে আমদানি করা এবং বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের উৎপাদিত স্যালাইনই ভরসা।

ডেঙ্গুতে এ যাবৎকালের মধ্যে সবচেয়ে ভয়াবহ সময় পার করছে বাংলাদেশ। চলতি বছর ইতোমধ্যেই সাড়ে ৮শরও বেশি মানুষ প্রাণ হারিয়েছে এ রোগে; পৌনে দুই লাখ মানুষ ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। আর বাসাতেই চিকিৎসা নিয়েছেন এরচেয়েও ৬ গুণ বেশি রোগী। ডেঙ্গুতে আক্রান্তদের প্রধান চিকিৎসা আইভি ফ্লুইড বা স্যালাইন হওয়ায় এর চাহিদা বেড়েছে অতীতের যেকোনো সময়ের চেয়ে অনেকগুণ বেশি। ডেঙ্গুর পাশাপাশি শিশুদের টাইফয়েডে আক্রান্ত হওয়ার সংখ্যা বেড়ে যাওয়ায় স্যালাইনের সংকট প্রকটভাবে দেখা দিয়েছে।


বিএমডব্লিউ গাড়ি যৌতুক না দেওয়ায় ভাঙলো বিয়ে, পাত্রীর আত্মহত্যা

০৭ ডিসেম্বর ২০২৩, ০৪:৪৩ পিএম | আপডেট: ০৭ ডিসেম্বর ২০২৩, ০৪:৫৪ পিএম


বিএমডব্লিউ গাড়ি যৌতুক না দেওয়ায় ভাঙলো বিয়ে, পাত্রীর আত্মহত্যা
বিএমডব্লিউ গাড়ি ও শাহনা। ছবি: সংগৃহীত।

অতিরিক্ত যৌতুক দাবি করায় বিয়ে ভেঙে গেছে। কিন্তু এ ঘটনা মেনে নিতে পারেনি ২৬ বছর বয়সি চিকিৎসক পাত্রী শাহনা। তাই বাধ্য হয়ে বেছে নেন ভয়ংকর পথ। আত্মহত্যা করেছেন তিনি। ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের কেরলেতে।

জানা গেছে, হবু স্বামী এবং শাহনা তিরুঅনন্তপুরম মেডিক্যাল কলেজে সার্জারি বিভাগে স্নাতকোত্তর করছিলেন। সেখান থেকেই দুই জনের পরিচয়।

শাহনার এক আত্মীয় জানিয়েছেন, পণ হিসাবে আমরা নগদ ৫০ লক্ষ টাকা, ৫০টি সোনার বন্ড এবং একটি গাড়ি দিতে চেয়েছিলাম। কিন্তু বর পক্ষের কাছে তা যথেষ্ট ছিল না। ছেলের বাড়়ি থেকে সোনা, জমি এবং একটি বিএমডাব্লু গাড়ি পণ হিসাবে চাওয়া হয়েছিল।

পুলিশ জানিয়েছে, সম্প্রতি শাহনার বাবা মারা গেছে। তার উপর সহপাঠীর সাথে বিয়ে ভাঙ্গায় নিজেকে সামলাতে না পেরে আত্মহত্যার পথ বেছে নিয়েছেন তিনি।

শাহনার হবু স্বামী রুওয়াজ আবার কেরলের স্নাতকোত্তর মেডিক্যাল পড়ুয়াদের সংগঠনের রাজ্য সভাপতি। শাহনার চরম পদক্ষেপের কথা ছড়িয়ে পড়তেই ওই সংগঠনটি রুওয়াজকে পদ থেকে বহিষ্কার করেছে।

এদিকে কেরলের স্বাস্থ্যমন্ত্রী বীণা জর্জ ঘটনার বিভাগীয় তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন। শাহনার মায়ের সঙ্গে দেখা করেছেন কেরলের মহিলা কমিশনের প্রধান আইনজীবী সাথীদেবী। পুলিশের কাছে ঘটনার রিপোর্টও তলব করেছে কমিশন।

তিনি জানিয়েছেন, পুলিশের রিপোর্টে যদি দেখা যায় রুওয়াইজের পরিবারের চাহিদা অনুযায়ী পণ দিতে না পারার কারণেই শাহনা চরম সিদ্ধান্ত নিয়েছেন, তা হলে তার পরিবারের বিরুদ্ধেও মামলা চালু করা হবে। সূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা


শাহবাগে যাত্রীবাহী বাসে আগুন

০৭ ডিসেম্বর ২০২৩, ০৪:২১ পিএম | আপডেট: ০৭ ডিসেম্বর ২০২৩, ০৪:৫৩ পিএম


শাহবাগে যাত্রীবাহী বাসে আগুন
যাত্রীবাহী বাসে আগুন। ছবি: সংগৃহীত

রাজধানীর শাহবাগে আজিজ সুপার মার্কেটের সামনে তরঙ্গ পরিবহনের একটি বাসে আগুন দিয়েছে দুর্বৃত্তরা।

বৃহস্পতিবার দুপুর পৌনে ২টার দিকে এ অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটে।

ফায়ার সার্ভিসের ডিউটি অফিসার রোজিনা আক্তার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, আজিজ সুপার মার্কেটের সামনে বাসে আগুন দেয়ার খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের দুটি ইউনিট ঘটনাস্থলে যায়। এ ঘটনায় হতাহতের কোনো খবর পাওয়া যায়নি।

এর আগে সকাল সাড়ে ৯টার দিকে মতিঝিল বক চত্বরে একটি যাত্রীবাহী বাসে আগুন দেয় অবরোধকারীরা। ফায়ার সার্ভিসের ডিউটি অফিসার রোজিনা আক্তার এ ব্যাপারে জানান, সকাল সাড়ে ৯টার দিকে মতিঝিলে গাজীপুর পরিবহনের একটি বাসে অগ্নিসংযোগের খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের দুটি ইউনিট রওনা হয়। তবে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে যাওয়ার আগেই স্থানীয়রা ফায়ার এক্সটিংগুইসার দিয়ে আগুন নিভিয়ে ফেলেন।

বিএনপি ও সমমনা রাজনৈতিক দলগুলোর ডাকা দশম দফা অবরোধের দ্বিতীয় দিন আজ। এ দফার অবরোধে বুধবার (৬ ডিসেম্বর) ভোর ৬টা থেকে বৃহস্পতিবার ভোর ৬টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় সারাদেশে ১২টি যানবাহনে দুর্বৃত্তদের অগ্নিসংযোগের তথ্য জানিয়েছে ফায়ার সার্ভিস। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি ঢাকা শহরে ৬টি যানবাহনে আগুন দেয়া হয়েছে।


যে কারণে টাইম ম্যাগাজিনের বর্ষসেরা হলেন টেলর সুইফট

০৭ ডিসেম্বর ২০২৩, ০৪:১০ পিএম | আপডেট: ০৭ ডিসেম্বর ২০২৩, ০৪:৫৩ পিএম


যে কারণে টাইম ম্যাগাজিনের বর্ষসেরা হলেন টেলর সুইফট
টেলর সুইফট। ছবি: সংগৃহীত

এ বছরটাই ছিল টেলর সুইফটের। চলতি বছর এই পপ সেনসেশন রেকর্ডের পর রেকর্ড ভেঙেছেন। নিজের নামের পাশে গড়েছেন অসংখ্য মাইলফলক। আর সাফল্যের ধারাবাহিকতায় টেলর ছিলেন সবার উপরে। তাই সেরার সম্মান নিয়েই বছর শেষ করতে যাচ্ছেন পপকুইন, তা বলাই বাহুল্য। যার শুরুটা হলো টাইম ম্যাগাজিনের সেরা ব্যক্তিত্বের সম্মাননার মধ্য দিয়ে। ২০২৩ সালে ‘বর্ষসেরা ব্যক্তি’ হিসেবে নির্বাচিত করা হয়েছে টেলর সুইফটকে।

বুধবার (৬ ডিসেম্বর) ম্যাগাজিনের পক্ষ থেকে বলা হয়, চলতি বছর সুইফট তার প্রায় দুই দশকের খ্যাতি ও প্রভাবের শীর্ষে পৌঁছেছেন। তিনিই প্রথম শিল্পকলার ব্যক্তি, যিনি বিনোদনদাতা হিসেবে সাফল্যের জন্য সম্মানিত হয়েছেন।

টেলর সুইফট

 

১৯২৭ সাল থেকে টাইম ম্যাগাজিন প্রতি বছর 'পার্সন অব দ্য ইয়ার' খেতাব দিয়ে আসছে বিশ্বসেরা গুরুত্বপূর্ণ কোনো ব্যক্তিত্বকে। বেশিরভাগ সময় বছরজুড়ে হেডলাইন আর লাইমলাইটে থাকা ব্যক্তিত্ব, বিশেষ করে রাজনীতিবিদ ও অর্থনীতিতে গুরুত্ব বহন করা ব্যক্তিরা পান এই সম্মাননা। তবে এ বছরের সব হিসাব ওলট-পালট করে দিয়েছেন মেগা পপ তারকা সুইফট।

৩৩ বছর বয়সী এই তারকা তার 'ইরাস ট্যুর'-এর অংশ হিসেবে বছরজুড়ে বিশ্ব ভ্রমণ করেছেন। বিশ্বের বিভিন্ন শহরে পুরো ক্যারিয়ারের সঙ্গীত প্রদর্শন করেছেন। সেখানে তিনি টিকিট বিক্রির রেকর্ড ভেঙেছেন। প্রতিটি শহরের অর্থনীতিকে চাঙ্গা করেছেন।

টেলর সুইফট

 

সুইফট টাইমকে বলেন, এটি আমার জীবনের সবচেয়ে গর্বিত, সুখী, সবচেয়ে সৃজনশীল এবং স্বাধীন অভিজ্ঞতা।

২০২৪ সালে এশিয়া, অস্ট্রেলিয়া, ইউরোপ ও যুক্তরাষ্ট্রজুড়ে চলমান 'ইরাস ট্যুর' বিশ্বের ইতিহাসে সর্বোচ্চ উপার্জনকারী হওয়ার পথে রয়েছে বলে জানিয়েছে আমেরিকান সংগীত ও বিনোদন ম্যাগাজিন বিলবোর্ড। সুইফটের এই ট্যুরে ২০২৩ সালজুড়ে প্রায় ৯০০ মিলিয়ন ডলার আয় এসেছে। প্রতি শোতে প্রায় ১৪ মিলিয়ন ডলার আয় করেছেন তিনি।

টেলর সুইফট

 

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের স্টেডিয়ামে দর্শক-চাহিদা গত বছর এতটাই বৃদ্ধি পেয়েছিল যে, প্রতি টিকিট ২৮ হাজার ডলারে পৌঁছেছিল। বেশি দামে টিকিট বিক্রি নিয়ে মামলা এবং একটি ফেডারেল তদন্তও হয়েছিল।

বিভিন্ন মার্কিন সংবাদমাধ্যম বলছে, সুইফটের 'ইরাস ট্যুর'র ফলে পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে ইতিবাচক অর্থনৈতিক সূচকের দেখা মিলেছে। বিশ্বজুড়ে বাদ-বিবাদ আর হানাহানির মাঝে তিনি কনসার্টের মাধ্যমে সুতার মালায় গেঁথেছেন বিশ্ববাসীকে। দেশের সীমানা পেরিয়ে টেইলর এক ধরনের একাত্মতাবোধ অনুভব করতে বাধ্য করেছেন বিশ্ববাসীকে। তাই সবাইকে পেছনে ফেলে হয়েছেন টাইম ম্যাগাজিনের বর্ষসেরা ব্যক্তিত্ব।

টেলর সুইফট

 

ফোর্বস ম্যাগাজিন চলতি সপ্তাহে সুইফটকে বিশ্বের পঞ্চম ক্ষমতাধর নারী হিসেবে তালিকাভুক্ত করেছে। ক্ষমতাধর নারী প্রধানমন্ত্রীসহ ভাইস প্রেসিডেন্টের মতো ব্যক্তিদের পেছনে ফেলেছেন তিনি।

অনুসরণ করুন