‘ইউক্রেনে লিওপার্ড ট্যাঙ্ক পাঠাতে জার্মানির বাধা নেই’

২৩ জানুয়ারি ২০২৩, ০১:২৬ পিএম | আপডেট: ২৮ জানুয়ারি ২০২৩, ১১:৪৩ পিএম


‘ইউক্রেনে লিওপার্ড ট্যাঙ্ক পাঠাতে জার্মানির বাধা নেই’

রাশিয়ার আগ্রাসনের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের জন্য পোল্যান্ড যদি তার লিওপার্ড ট্যাঙ্ক ইউক্রেনে পাঠাতে চায় তবে বাধা দেবে না জার্মানি।

স্থানীয় সময় রবিবার (২৩ জানুয়ারি) প্যারিসে ফ্রাঙ্কো-জার্মান সম্মেলনের পর জার্মানির পররাষ্ট্রমন্ত্রী আনালেনা বেয়ারবক এ কথা জানান। খবর এএফপির।

জার্মান পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, তার দেশ রুশ আগ্রাসনের বিরুদ্ধে ইউক্রেনে জার্মানির তৈরি লিওপার্ড ট্যাঙ্ক পাঠানোর জন্য পোল্যান্ডকে অনুমোদন দিতে প্রস্তুত রয়েছে। তবে, এক্ষেত্রে ওয়ারশ যদি এমন অনুরোধ জানায়, তাহলে তারা এ অনুমতির পদক্ষেপ নেবে বলে তিনি জানান।

এলসিআই টেলিভিশনকে বেয়ারবক বলেন, ‘যদি আমাদের প্রশ্ন করা হয়, তাহলে আমরা এ পথে বাধা হয়ে দাঁড়াবো না।’

তিনি বলেন, ‘আমরা জানি যে এই ট্যাঙ্কগুলো কতটা গুরুত্বপূর্ণ এবং এ কারণেই আমরা এখন আমাদের অংশীদারদের সঙ্গে বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করছি। আমাদের নিশ্চিত করতে হবে যে মানুষের জীবন রক্ষা করা হয়েছে এবং ইউক্রেনের ভূখণ্ড মুক্ত হয়েছে।

সোশ্যাল ডেমোক্রেট চ্যান্সেলর ওলাফ স্কোলজের ক্ষমতাসীন জোটে গ্রিনদের প্রতিনিধিত্বকারী বেয়ারবক বলেন, পোল্যান্ড এখনো আনুষ্ঠানিক অনুরোধ জানায়নি।

বার্লিনের নিজস্ব মজুত থেকে কিছু লিওপার্ড ট্যাঙ্ক ইউক্রেনের কাছে পাঠানোর জন্য কিয়েভের চাপের বিরোধিতা করার পর তিনি এমন মন্তব্য করলেন।

এদিকে পোল্যান্ড জানিয়েছে, তারা কিয়েভকে ১৪টি লিওপার্ড ট্যাঙ্ক সরবরাহ করবে। তবে প্রধানমন্ত্রী মাতেউস মোরাইউকি বলেছেন, যেসব দেশের কাছে এ সব ট্যাঙ্ক রয়েছে তারা তা ইউক্রেনের কাছে পাঠাতে পারে কি না সে ব্যাপারে তিনি বার্লিনের স্পষ্ট বিবৃতির জন্য অপেক্ষা করছেন।

তিনি তাদের নিজস্ব ট্যাঙ্ক ইউক্রেনে পাঠাতে জার্মানির অস্বীকৃতিকে ‘অগ্রহণযোগ্য’ বলে বর্ণনা করেছেন।

শনিবার (২১ জানুয়ারি) এক যৌথ বিবৃতিতে বাল্টিক রাষ্ট্রের তিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী জার্মানিকে— এখনই ইউক্রেনে লিওপার্ড ট্যাঙ্ক সরবরাহ করার জন্য আহ্বান জানান।

এদিকে ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি শুক্রবার (২০ জানুয়ারি) বলেছেন, পশ্চিমাদের কাছে ইউক্রেনকে ভারী ট্যাঙ্ক দেওয়া ছাড়া কোনো বিকল্প নেই।

আরএ/


বিভাগ : সারাবিশ্ব