আওয়ামী লীগ এখন একটা সন্ত্রাসী সংগঠন: মান্না

১৮ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৬:২৯ পিএম | আপডেট: ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৪:১৭ পিএম


আওয়ামী লীগ এখন একটা সন্ত্রাসী সংগঠন: মান্না

নাগরিক ঐক্যের সভাপতি মাহমুদুর রহমান মান্না বলেছেন, ‘বিএনপি নেতাকর্মীদের উপর এই হামলা প্রমাণ করে সরকার অবৈধ ক্ষমতা হারানোর ভয়ে কতটা বেপরোয়া হয়ে উঠেছে।’

রবিবার (১৮ সেপ্টেম্বর) দলের সাংগঠনিক সম্পাদক সাকিব আনোয়ার স্বাক্ষরিত বিবৃতিতে এসব কথা বলেন তিনি।

মান্না বলেন, ‘বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান বরকত উল্লাহ বুলু ও তার স্ত্রীর উপর নৃশংস হামলা চালানো হয়েছে। তাদের সাথে আহত হয়েছেন আরো বেশ কয়েকজন নেতাকর্মী। তারা কোন রাজনৈতিক কর্মসূচিতে ছিলেন না। চায়ের দোকানে ঢুকে তাদের উপর হামলা চালিয়েছে আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগের ক্যাডাররা। বনানীতে মোমবাতি প্রজ্জ্বলনের মত কর্মসূচি শেষে ফেরার পথে পেছন থেকে অতর্কিত হামলা চালানো হয়েছে তাবিথ আউয়াল সহ বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দের উপর। আওয়ামী লীগ এখন একটা সন্ত্রাসী সংগঠন। ক্ষমতা হারানোর ভয়ে সরকার এবং সরকারি দল যে কতটা সন্ত্রস্ত তা এই দুটি ন্যাক্কারজনক ঘটনা থেকে বোঝা যায়। তারা হামলা, মামলা, গুম, খুন, বিচার বহির্ভূত হত্যাকান্ডের মাধ্যমে বিরোধী রাজনৈতিক শক্তি এবং জনগণকে ভয় দেখিয়ে ২০১৪ এবং ২০১৮'র মত আরেকটি প্রহসনের নির্বাচনের মাধ্যমে অবৈধ ক্ষমতা টিকিয়ে রাখতে চায়।’

কুমিল্লার মনোহরগঞ্জের বিপুলাসারে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান বরকত উল্লাহ বুলু এবং ঢাকার বনানীতে তাবিথ আউয়ালসহ বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দের উপর আওয়ামী সন্ত্রাসীদের বর্বরোচিত হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন নাগরিক ঐক্যের মান্না।

তিনি বলেন, ‘এভাবে ভয় দেখিয়ে গনতন্ত্র পুনরুদ্ধারের আন্দোলন বন্ধ করা যাবে না। সরকার এবং সরকারি দলের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ আন্দোলনে যে গণজোয়ার সৃষ্টি হয়েছে, তা ঠেকানোর ক্ষমতা এই ভোট ডাকাত সরকার এবং তাদের দোসরদের নেই। এই সরকার আন্তর্জাতিকভাবেও স্বৈরাচার এবং দখলদার হিসেবে স্বীকৃত। বিশ্বের কোন গণতান্ত্রিক শক্তি এই ফ্যাসিবাদী সরকারের পক্ষে নেই।’

সকল বিরোধী শক্তি এবং দেশপ্রেমিক জনগণকে ঐক্যবদ্ধভাবে ফ্যাসিবাদী সরকার এবং তার দোসরদের প্রতিহত করার আহ্বান জানান মাহমুদুর রহমান।

এমএইচ/এএস


বিভাগ : রাজনীতি