৩ কোটি টাকা বিদ্যুৎ বিল বকেয়া, অন্ধকারে বরগুনা

২২ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৯:২৪ পিএম | আপডেট: ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১১:০৫ পিএম


৩ কোটি টাকা বিদ্যুৎ বিল বকেয়া, অন্ধকারে বরগুনা

বরগুনা পৌরসভার কাছে ৩ কোটি টাকারও বেশি বিদ্যুৎ বিল বকেয়া থাকায় পৌরসভা কার্যালয়সহ পৌর এলাকার সব সড়ক এবং পৌরসভার সব স্থাপনার বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করেছে বিদ্যুৎ সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান ওয়েস্ট জোন পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেড (ওজোপাডিকো)।

বুধ ও বৃহস্পতিবার বিশেষ অভিযান চালিয়ে ওজোপাডিকো এর ভারপ্রাপ্ত নির্বাহী প্রকৌশলী অতীব বিশ্বাসের নেতৃত্বে পৌরসভা কার্যালয় ও শহরের বিনোদন কেন্দ্র নাথ পট্টি লেকসহ সড়কের সব বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়। ফলে সন্ধ্যা গড়াতেই অন্ধকারে ঢেকে গেছে পুরো শহর, ভোগান্তিতে পড়ছেন নাগরিকরা। এ ছাড়া রাতের বেলা সড়কগুলোতে বিদ্যুৎ না থাকার কারণে নিরাপত্তাহীনতায় চলাচল করতে হচ্ছে পথচারীদের।

ওজোপাডিকো এর নির্বাহী প্রকৌশলী (ভারপ্রাপ্ত) অতীব বিশ্বাস বলেন, বকেয়া বিল পরিশোধ করার জন্য পৌরসভাকে একাধিকবার নোটিশ দেওয়া হয়েছে। মেয়র সাহেবকে মৌখিকভাবেও বলা হয়েছে। তারা বকেয়া বিল পরিশোধের কোনো উদ্যোগ না নেওয়ায় মন্ত্রণালয়ের নির্দেশে সংযোগ বিচ্ছিন্ন করতে হয়েছে।

ওজোপাডিকো জানায়, ২০২২ সালের আগস্ট পর্যন্ত বরগুনা পৌরসভার কাছে তাদের ২ কোটি ৯৪ লাখ টাকা বকেয়া বিল রয়েছে। সেপ্টেম্বরে বেড়ে তা ৩ কোটি ছাড়িয়ে যাবে। এর মধ্যে ২০১১ সালে ৪০ লাখ টাকা বকেয়া বিল সাবেক মেয়র পরিশোধ করেন। সাবেক মেয়র তার সময়ের ১ কোটি ৮০ লাখ টাকার বিল থেকে ৩০ লাখ টাকা পরিশোধ করেন। সব মিলিয়ে ২০২২ সালের আগস্ট পর্যন্ত ২ কোটি ৯৪ লাখ টাকা বকেয়া রয়েছে।

পৌরসভা মেয়র অ্যাডভোকেট কামরুল আহসান মহারাজ মুঠোফোনে ঢাকাপ্রকাশ-কে বলেন, আমি বর্তমানে ঢাকায় মন্ত্রণালয়ে কাজে এসেছি। বিগত মেয়রের সময়ের বকেয়া বিলের দায়ও আমাকে নিতে হচ্ছে। আমি দায়িত্ব গ্রহণের পর এই কয়েক মাসে এত মোটা অংকের বিল বকেয়া থাকার কথা নয়। আমি এসে আপনাদের বিস্তারিত অবহিত করব। নাগরিকদের সাময়িক দুর্ভোগের জন্য আমি দুঃখিত।

এসজি


বিভাগ : সারাদেশ