আজ আদালতে মুখোমুখি হচ্ছেন টুইটারের সহ-প্রতিষ্ঠাতা জ্যাক ডরসি ও ইলন মাস্ক

২০ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৮:২৩ পিএম | আপডেট: ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৪:৫১ এএম


আজ আদালতে মুখোমুখি হচ্ছেন টুইটারের সহ-প্রতিষ্ঠাতা জ্যাক ডরসি ও ইলন মাস্ক

বিশ্বখ্যাত সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ‘টুইটার’র সহ-প্রতিষ্ঠাতা ও সাবেক প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা জ্যাক ডরসি আজ মঙ্গলবার সকালে তার দেশ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে আইনজীবীদের মুখোমুখি হচ্ছেন।

আদালতে তাকে তার প্রতিষ্ঠানের পক্ষে ইলন মাস্কের বিপক্ষে দাঁড়াতে হবে।

তারা দুই পক্ষ ৪৪ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের বিনিময়ে অধিগ্রহণের মামলা লড়ছেন।

গতকাল সোমবার একটি জবানবন্দী নোটিশ ফাইল করার পর তাকে আদালতে উঠতে হচ্ছে।

৪৫ বছরের এই বিশ্বখ্যাত উদ্ভাবক মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মিসৌরি অঙ্গরাজ্যের সেন্ট লুইসে জন্মগ্রহণ করেছেন।

তার টুইটার থেকে গত বছরের নভেম্বরে ডরসিকে নামিয়ে দেওয়ার পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছিল ও তিনি সরে যেতে বাধ্য হয়েছিলেন।

তিনি এই বছরের মে মাস পর্যন্ত তার পরিচালনা বোর্ডে ছিলেন।

তারপর নানা ঘটনাপ্রবাহে জ্যাক ডরসি ইলন মাস্কের টিমের মাধ্যমে ব্যাপক আকারের তথ্য প্রদান, সেগুলোর মধ্যে আছে সব প্রমাণাদি, অফিশিয়াল ও যোগাযোগ বিষয়ক সব প্রমাণপত্র প্রদানের জন্য আদালতের একটি হুকুমনামার মুখোমুখি হয়েছেন।

তাকে এই হুকুমনামায় ম্যানেজারদের নানা জায়গায় বসানো, সব ধরণের কাজের প্রতিফলন, কর্ম নির্দেশনাসহ টুইটারের ব্যবসায় পরিচালনা এবং কর্মপ্রক্রিয়াতে অর্ন্তভুক্ত ভুয়া স্পার্ম অ্যাকান্টগুলোর প্রভাব এবং কাজের ফলাফল প্রদানের নির্দেশও রয়েছে।

এরও আগে যখন দুই পক্ষের চুক্তি হয়েছে অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা জ্যাক ডরসি মাস্কের টুইটার গ্রহণের বিষয়ে ভালো মতামত প্রকাশ করেছিলেন।

তিনি এই কথাগুলো বলেছিলেন অধিগ্রহণের বিষয়টি প্রকাশের পর।

তিনি বলেছিলেন তার টুইটে, ‘আমি বিশ্বাস করি ইলন হলো একমাত্র সমাধান। আমি তার মহৎ উদ্দেশ্যকে বিশ্বাস করি। তার সচেতন আলোটিকে (টুইটার) বিস্তৃত করার দূতের কাজটিকে আমি বিশ্বাস করি।’

ছবি : মাকিন তথ্য প্রযুক্তি উদ্যোক্তা ও টুইটারের সহ-প্রতিষ্ঠাতা এবং সিইও জ্যাক ডরসি।

ওএফএস/