জবি ছাত্রীহলের বিজ্ঞপ্তিতে ‘মুবিজ’ লেখায় প্রতিবাদ

২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১০:০৭ পিএম | আপডেট: ০৩ ডিসেম্বর ২০২২, ০৮:১২ পিএম


জবি ছাত্রীহলের বিজ্ঞপ্তিতে ‘মুবিজ’ লেখায় প্রতিবাদ

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) একমাত্র ছাত্রীহল বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব হলের ‘মুজিব’ বানান বিকৃত করার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়টির শিক্ষকদের সংগঠন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় নীলদল (একাংশ)।

সোমবার (২৬ সেপ্টেম্বর) নীলদলের সভাপতি অধ্যাপক ড. মো. জাকির হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক ড. নাফিস আহমদ স্বাক্ষরিত প্রতিবাদলিপিতে এ প্রতিবাদ জানানো হয়।

প্রতিবাদলিপিতে বলা হয়, ২২ সেপ্টেম্বর আসন্ন দুর্গাপূজা, লক্ষ্মীপূজা এবং পবিত্র ঈদ-এ-মিলাদুন্নবী (সা.) উপলক্ষে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব হলের প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. শামীমা বেগম কর্তৃক স্বাক্ষরিত এক ছুটির বিজ্ঞপ্তিতে হলের নামের শেষাংশে ‘মুজিব’ বানানটি বিকৃতভাবে ‘মুবিজ’ উল্লেখ করা হয়েছে যা আমাদের দৃষ্টিগোচর হয় এবং আহত করে। একটি প্রতিষ্ঠিত পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের গুরুত্বপূর্ণ পদে আসীন কোনো ব্যক্তির পত্র অথবা বিজ্ঞপ্তিতে এ ধরনের বিকৃতি অমার্জনীয় অপরাধ বলে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় নীলদল মনে করে।

আরও বলা হয়, এ ঘটনার পর প্রাধ্যক্ষের পক্ষ থেকে ভুল স্বীকারপূর্বক দুঃখ প্রকাশ করে কোনো বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করতে দেখা যায়নি। নীলদলের শিক্ষকরা এজন্য অত্যন্ত হতাশ ও সংক্ষুব্ধ এবং দ্ব্যর্থহীন ভাষায় এ ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জ্ঞাপন করছে।

বঙ্গবন্ধুর নামের অংশ বিকৃত করার বিষয়টিকে অমার্জনীয় অপরাধ বিবেচনা করে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় নীলদলের পক্ষ থেকে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য অনুরোধ জানানো হয়।

এ বিষয়ে হল প্রভোস্ট অধ্যাপক ড. শামীমা বেগম বলেন, ‘আমি যখন স্বাক্ষর করি তখনও দুটি ভুল ছিল, ভুলগুলো মার্ক করে দিয়েছিলাম। সেকশন অফিসার তারপরেও ভুল করেছে।’

ভুল বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের পরেও দুঃখ প্রকাশের বিষয়ে তিনি বলেন, ‘পরবর্তীতে তো বিজ্ঞপ্তিই পরিবর্তন করে দেওয়া হয়েছে।’

উল্লেখ্য, ছুটির বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের পরে শিক্ষার্থীদের তোপের মুখে পূজার ছুটিতে ছাত্রীহল খোলা রাখার ঘোষণা দিয়েছে হল কর্তৃপক্ষ।

আরএ/


বিভাগ : ক্যাম্পাস