ঢাকায় এসে বিপদে ইমন, সাহায্য চাইছেন ফেসবুকে

১৯ নভেম্বর ২০২৩, ১০:৫০ এএম | আপডেট: ০৬ ডিসেম্বর ২০২৩, ১২:২৩ পিএম


ঢাকায় এসে বিপদে ইমন, সাহায্য চাইছেন ফেসবুকে
ছবি:সংগৃহীত

আজ (রোববার)দুপুরে আহমেদাবাদের নরেন্দ্র মোদি স্টেডিয়ামে গড়াবে বিশ্বকাপের ফাইনাল আসর । অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে বিশ্বকাপের ফাইনালে মাঠে নামবে ভারত। যে ম্যাচকে ঘিরে উত্তেজনা বিরাজ করছে পুরো ভারতজুড়েই। একে তো এদিন দেশটিতে সাপ্তাহিক ছুটি, অন্যদিকে বিশ্বকাপের ফাইনাল। সব মিলিয়ে দর্শকরাও আগে থেকেই প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছেন ফাইনাল ম্যাচ জমিয়ে উপভোগ করবেন বলে।

তবে এর মধ্যেই যেন বিপাকে পড়েছেন কলকাতার সংগীতশিল্পী ইমন চক্রবর্তী। বর্তমানে কোনো এক শো-এর কারণে ঢাকায় অবস্থান করছেন তিনি। সেখান থেকেই জানালেন, মুঠোফোনে যে অ্যাপের মাধ্যমে লাইভ ক্রিকেট খেলা দেখা যায়, সেই অ্যাপটি চলছে না।

এক ফেসবুক স্ট্যাটাসে সাহায্য চেয়ে এই গায়িকা লিখেছেন, ‘ঢাকায় আছি, কিন্তু হটস্টার চলছে না। আমি কী করে বিশ্বকাপ দেখব। কেউ কোনও পরামর্শ দাও।’

ইমনের সেই পোস্টেও অনেকেই মন্তব্য করে গায়িকাকে বিভিন্ন পরামর্শ দিয়েছেন। কেউ টিভিতে খেলা দেখতে বলেছেন, কেউ বা বাংলাদেশি কিছু অ্যাপ নামিয়ে ইনস্টল করে ব্যবহার করতে বলেছেন। সেই সাথে নায়িকাকে দুশ্চিন্তা না করারও পরামর্শ দিয়েছেন ভক্তরা।

ইমনকে যারা অনুসরণ করেন তারা জানেন, সুযোগ পেলেই মাঠে গিয়ে খেলা দেখতে হাজির হন এই গায়িকা। যদিও এবার নিজের ব্যস্ততার কারণে ফাইনালের দিন গ্যালারিতে উপস্থিত হতে পারবেন না তিনি।


১০ কোটি টাকা পুরস্কার পেলেন বাড়ির উঠোনে স্কুল প্রতিষ্ঠা করা শিক্ষক

০৭ ডিসেম্বর ২০২৩, ০২:৫১ পিএম | আপডেট: ০৭ ডিসেম্বর ২০২৩, ০৩:১৫ পিএম


১০ কোটি টাকা পুরস্কার পেলেন বাড়ির উঠোনে স্কুল প্রতিষ্ঠা করা শিক্ষক
ছবি: সংগৃহীত

সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের বিনামূল্যে লেখাপড়া করানোর উদ্দেশে মাত্র ১৩ বছর বয়সে নিজের বাড়ির উঠোনে একটি স্কুল প্রতিষ্ঠা করেছিলেন পাকিস্তানের রিফাত আরিফ । কিন্তু অর্থের অভাবে রিফাতের কাছে ছিল না কোনো শিক্ষক কিংবা ভবন । কিন্তু মনোবল ছিল অটুট । আজ সেই মনোবল স্বপ্নকে পুঁজি করেই রিফাত আরিফ এখন সারা বিশ্বের শিক্ষকের কাছে আইকন। অর্থের অভাবে যিনি স্কুল চালাতে পারছিল না । তিনিই আজ কোটিপতি বনে গেলেন ।

পাকিস্তানের সংবাদমাধ্যম এক্সপ্রেস ট্রিবিউন জানিয়েছে, রিফাত আরিফ ‘সিস্টার জেফ’ নামেও পরিচিত। এই নারী শিক্ষাবিদের জন্ম পাকিস্তানের গুজরানওয়ালায়। স্কুল চালানোর অর্থ জোগাড়ের জন্য তিনি একটি প্রতিষ্ঠানে চাকরি করতেন। সেই প্রতিষ্ঠানে প্রতিদিন আট ঘণ্টা কাজ করার পর সন্ধ্যায় স্কুলে ফিরে এসে চার ঘণ্টা ছেলেমেয়েদের পড়াতেন। রিফাতের এই পরিশ্রম বৃথা যায়নি। দীর্ঘ ২৬ বছর পর তাঁর স্কুলে এখন শিক্ষার্থীর সংখ্যা ২০০ জন। সবাইকেই তিনি বিনামূল্যে শিক্ষা দেন।

রিফাত আরিফের স্কুল । ছবি: সংগৃহীত

রিফাতের এই মহানুভবতার জন্য গত মাসে তিনি ইউনেস্কোর ‘গ্লোবাল টিচার’ অ্যাওয়ার্ড পেয়েছেন। ফ্রান্সের প্যারিসে পুরস্কার গ্রহণের মঞ্চে দাঁড়িয়ে রিফাত বলেন, শিক্ষকতা নিছক কোনো পেশা নয়। এটি এমন এক পেশা, যা পরবর্তী প্রজন্মকে তৈরি করে। আসুন, আমরা প্রতিটি শিশুকে শেখার সুযোগ দেই, স্বপ্ন দেখার সুযোগ দেই এবং তাদেরকে ইতিবাচকভাবে বেড়ে উঠতে দেই।

পুরস্কার হিসেবে ১০ লাখ ডলার পেয়েছেন রিফাত, যা বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় ১০ কোটি টাকা। পুরস্কারের এই পুরো অর্থই তিনি শিক্ষাখাতে ব্যয় করার ঘোষণা দিয়েছেন। তিনি বলেন, ‘পাকিস্তানের অনেক ছোট শহরে পর্যাপ্ত স্কুল নেই, শিক্ষক নেই। অনেক শিশু শিক্ষার অধিকার থেকে বঞ্চিত। তাদের দিকে আমাদের নজর দিতে হবে।’

রিফাত আরিফ বলেছেন, পুরস্কারের এই অর্থ দিয়ে তিনি অনাথ শিশুদের জন্য একটি স্কুল ও আশ্রয়কেন্দ্র নির্মাণ করবেন। সারা পৃথিবী থেকে শিক্ষকদের নিয়ে এসে শিশুদের বিভিন্ন বিষয়ে শিক্ষা দেওয়ার পরিকল্পনা আছে বলেও জানান তিনি।


প্রতিদিন ঘি খেলে যে উপকারিতা

০৭ ডিসেম্বর ২০২৩, ০২:৩২ পিএম | আপডেট: ০৭ ডিসেম্বর ২০২৩, ০৩:১২ পিএম


প্রতিদিন ঘি খেলে যে উপকারিতা
ছবি: সংগৃহীত

গরম ভাতের সঙ্গে এক চামচ ঘি খেতে পছন্দ করেন অনেকেই। ঘি শুধু স্বাদে এবং গন্ধে অতুলনীয় নয়, এর স্বাস্থ্যগুণও রয়েছে অনেক। রান্নার স্বাদ বৃদ্ধিতে ঘি’য়ের জুড়ি নেই।

ঘি’তে থাকা অ্যান্টি-অক্সিড্যান্ট, ভিটামিন, খনিজ রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। এর পাশাপাশি শরীরের প্রতিটি পেশি শক্তিশালী করে, মেদ ঝরায়, হাড় মজবুত করে, শরীরের প্রতিটি কোষ সচল রাখে। অনেকের ধারণা, ঘি খেলেই ওজন বাড়ে।

পুষ্টিবিদরা বলছেন, ইচ্ছেমতো খেলে ওজন বাড়ার ঝুঁকি থাকে। কিন্তু নিয়ম করে খেলে শুধু ওজনই নিয়ন্ত্রণে থাকবে তা নয়। পাশাপাশি আরও অনেক স্বাস্থ্য উপকারিতা পাওয়া যাবে।

প্রতিদিন ঘি খাওয়ার অনেক স্বাস্থ্য উপকারিতা রয়েছে। আয়ুর্বেদ অনুসারে, ঘি শরীরকে ভেতর থেকে গরম করতে সাহায্য করে এবং ঠান্ডার জন্য উপকারি। নাকের ছিদ্রে কিছু ঘি লাগালে সংক্রমণে দ্রুত উপশম হবে।

ঘিতে থাকা ওমেগা-৩ ফ্যাটি অ্যাসিড প্রদাহ ও জ্বালাপোড়া কমাতে সাহায্য করে। ফলে এটি বদহজমের সমস্যা কমাতেও কাজে লাগে।

বাত ও জয়েন্টের ব্যথা কমাতে ঘি সহায়ক। ঘি খেলে এই সব ব্যথা কমতে পারে।

ঘিতে থাকা ভিটামিন, মিনারেল এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। দূষিত পদার্থ শরীর থেকে বের করে দিতে সাহায্য করে ঘি।

ঘি হজমশক্তির উন্নতি ঘটায়, কোষ্ঠকাঠিন্য ও পেট ফোলাভাব কমায়। অন্ত্রের স্বাস্থ্য ভালো রাখে। পেটের বহু সমস্যাই কমে এর কারণে।

ত্বক, চুল ও চোখের স্বাস্থ্যের জন্য ঘি খুবই ভালো। তবে ঘি পরিমিতভাবে খাওয়া উচিত। অতিরিক্ত খেলে ওজন বাড়ে। তাই প্রতিদিন এক চামচের বেশি ঘি খাওয়া উচিত নয়। সূত্র : হিন্দুস্থান টাইমস


১৭ জেলায় দমকা হাওয়া ও বজ্রসহ বৃষ্টির আভাস

০৭ ডিসেম্বর ২০২৩, ০২:১৩ পিএম | আপডেট: ০৭ ডিসেম্বর ২০২৩, ০৩:১২ পিএম


১৭ জেলায় দমকা হাওয়া ও বজ্রসহ বৃষ্টির আভাস
ছবি: সংগৃহীত

রাজধানী ঢাকাসহ দেশের ১৭টি অঞ্চলের ওপর দিয়ে ঘণ্টায় ৪৫-৬০ কি.মি. বেগে অস্থায়ীভাবে দমকা বা ঝোড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে।

বৃহস্পতিবার (৭ ডিসেম্বর) দুপুর ১টা পর্যন্ত দেশের অভ্যন্তরীণ নদীবন্দরগুলোর জন্য আবহাওয়ার পূর্বাভাসে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

এতে বলা হয়েছে, রাজশাহী, রংপুর, পাবনা, বগুড়া, টাঙ্গাইল, ময়মনসিংহ, ঢাকা, ফরিদপুর, যশোর, কুষ্টিয়া, খুলনা, বরিশাল, পটুয়াখালী, নোয়াখালী, কুমিল্লা, চট্টগ্রাম এবং সিলেট অঞ্চলের ওপর দিয়ে পূর্ব/দক্ষিণ-পূর্ব দিক থেকে ঘণ্টায় ৪৫-৬০ কি.মি. বেগে অস্থায়ীভাবে দমকা/ঝোড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি/বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। এসব এলাকার নদীবন্দরকে ১ নম্বর সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

এদিকে বুধবার রাতে দেওয়া আবহাওয়ার সবশেষ পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, সারাদেশে রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে ও দিনের তাপমাত্রা সামান্য বৃদ্ধি পেতে পারে।

অনুসরণ করুন