বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪ | ৩ শ্রাবণ ১৪৩১
Dhaka Prokash

মালয়েশিয়ার বিমানবন্দরে অপেক্ষমাণ হাজার হাজার বাংলাদেশি, চুক্তির মেয়াদ শেষ হচ্ছে আজ

ছবি: সংগৃহীত

মালয়েশিয়ার শ্রমবাজারে বাংলাদেশি কর্মী পাঠানোর জন্য দুদেশের মধ্যকার চুক্তির মেয়াদ শেষ হচ্ছে আজ (৩১ মে)। বৃহস্পতিবার (৩০ মে) সিএনএর এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে। হাতে অল্প সময় থাকায় জরুরিভিত্তিতে ফ্লাইটের ব্যবস্থা করে কর্মী পাঠানো হয়। এতে চাপ পড়েছে কুয়ালালামপুর বিমানবন্দরে।

সময় বৃদ্ধি করতে দেশটির সরকারকে সম্প্রতি ঢাকার পক্ষ থেকে চিঠি দেওয়া হলেও কুয়ালালামপুরের পক্ষ থেকে এ পর্যন্ত কোনো জবাব আসেনি। ফলে সে দেশে গমনে প্রস্তুত ৪০ হাজার কর্মীর ভাগ্য অনেকটাই অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে। চাহিদাপত্র থাকা সত্ত্বেও চুক্তির মেয়াদ পেরিয়ে যাচ্ছে, অথচ তারা সে দেশে যেতে পারছেন না।

সংশ্লিষ্টদের মতে, এ পরিস্থিতি সৃষ্টির নেপথ্যে দায়ী বাংলাদেশি ব্যবসায়ী রুহুল আমিন স্বপনের নেতৃত্বাধীন একটি চক্র। চক্রটি ভুয়া কোম্পানি খুলে, প্রয়োজনের অতিরিক্ত চাহিদা দেখিয়ে চাহিদাপত্র তৈরি করে। এর ফলে এরই মধ্যে মালয়েশিয়ায় অবস্থান করা চাহিদার অতিরিক্ত কর্মীরা কর্ম না পেয়ে যারপরনাই বিপাকে পড়েছেন।

সিএনএর এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বন্ধ হতে যাচ্ছে মালয়েশিয়ার শ্রমবাজার। ফলে দেশটিতে শেষ সুযোগ হিসেবে নিয়োগকারী প্রতিষ্ঠানগুলো বিপুল পরিমাণ শ্রমিক আনছে। এতে করে বিমানবন্দরে শ্রমিকদের বিশাল জটলা তৈরি হয়েছে। বিভিন্ন দেশ থেকে আসা শ্রমিকেরা বিমানবন্দরে আটকা পড়েছেন।

এদিকে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত কুয়ালালামপুরের দুটি আন্তর্জাতিক টার্মিনালে প্রায় ২০ হাজার বাংলাদেশি কর্মী পৌঁছেছেন, যারা দেশটিতে প্রবেশ করতে পারেননি। তারা অবস্থান করছেন বিমানবন্দরের ফ্লোরে। এতে দুর্ভোগ বাড়ছে কর্মী ও নিয়োগকর্তাদের। নিজেদের কর্মী শনাক্তেও ভোগান্তিতে পড়তে হচ্ছে নিয়োগকর্তাদের। দীর্ঘ সময় অপেক্ষা করতে হচ্ছে কর্মীদের।

এদিকে মালয়েশিয়ার অভিবাসন বিভাগ বৃহস্পতিবার এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, স্বাভাবিক পরিস্থিতিতে দৈনিক বিদেশি কর্মীদের আগমন হয় ৫০০ থেকে ১ হাজার। কিন্তু ২২ মে থেকে আগমনের সংখ্যা বাড়তে শুরু করে। এ পরিস্থিতিতে যাত্রীদের স্বাচ্ছন্দ্য নিশ্চিত ও যানজট নিয়ন্ত্রণে তাৎক্ষণিক পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে।

একটি সূত্রে জানা গেছে, বর্তমানে প্রায় ৪০ হাজার কর্মীর বাংলাদেশ থেকে বহির্গমন ছাড়পত্র ইস্যু হয়েছে। কর্মী প্রবেশের সময় আর মাত্র একদিন বাকি থাকায় বাংলাদেশ থেকে মালয়েশিয়া গমনেচ্ছু কর্মীরা উল্টো পথে দুবাই, কাতার, চীন, হংকং, সিংগাপুর, ইন্দোনেশিয়া হয়ে স্রোতের মতো দেশটিতে ঢুকছেন।

এরই মধ্যে অনেকের অভিযোগ, টিকিটের কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি করে সিন্ডিকেট চক্র মালয়েশিয়ার ৩০ হাজার টাকার ওয়ানওয়ে টিকিটের দাম এখন ৯৫ হাজার টাকা থেকে ১ লাখ ৮ হাজার টাকা পর্যন্ত বিক্রি করছে। এভাবে কোটি কোটি টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে চক্রটি।

নির্ধারিত ১০০ রিক্রুটিং এজেন্সির মাধ্যমে এফডব্লিউ সিএমএস প্রক্রিয়ায় বাংলাদেশি কর্মীদের দেশটিতে প্রবেশের সবশেষ সময়সীমা বেঁধে দেওয়া হয় ৩১ মে। এর ফলে বাংলাদেশি কর্মীদের ৩১ মের মধ্যে দেশটিতে প্রবেশের হিড়িক পড়েছে।

এ নিয়ে প্রবাসী কমিউনিটি নেতা রাশেদ বাদল বলেন, মালয়েশিয়া আমাদের জন্য অন্যতম বড় শ্রমবাজার হওয়ায় এ সিদ্ধান্তের ফলে আমাদের বিরাট ক্ষতি হতে যাচ্ছে। বাংলাদেশি শ্রমিকদের জন্য মালয়েশিয়া ছিল দ্বিতীয় বৃহত্তম গন্তব্য।

মালয়েশিয়ার শ্রমবাজার বন্ধ হওয়ায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক আরেক প্রবাসী বলেন, সিন্ডিকেট চক্রের অনিয়ম দুর্নীতি এবং অতিরিক্ত অভিবাসন ব্যয়ের কারণে ৩১ মের পর থেকে জনশক্তি রপ্তানি বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। দালালদের হাত বদল হয়ে প্রায় চার থেকে ৫ লাখ টাকা ব্যয় করে কর্মীরা দেশটিতে যাচ্ছে।

বায়রার যুগ্ম মহাসচিব মো. ফখরুল ইসলাম ফোনে আলাপকালে বলেন, প্রায় ১০ লাখ কর্মীর মেডিকেল করেও কোটি কোটি টাকা হাতিয়ে নেওয়া হয়েছে। দেশটিতে প্রবেশের সময় বৃদ্ধি না হলে প্রায় ২০ হাজার থেকে ৩০ হাজার কর্মী মালয়েশিয়া গমনে অনিশ্চয়তার মুখে পড়বে। ভবিষ্যতে মালয়েশিয়ার শ্রমবাজার উন্মুক্ত হলে কোনো সিন্ডিকেটের মাধ্যমে যাতে কর্মী নিয়োগ না হয় সে ব্যাপারে প্রবাসী মন্ত্রণালয়কে শক্ত অবস্থান নিতে হবে।

টিকিট সিন্ডিকেটের দৌরাত্ম্য নিয়ে ব্যবসায়ী দাতুশ্রী কামরুজ্জামান কামাল বলেন, মালয়েশিয়াগামী কর্মীদের টিকিট কয়েকটি এয়ারলাইন্স গতকাল থেকে অস্বাভাবিক বাড়িয়েছে। ৩০ হাজার টাকার টিকিট বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স ১ লাখ ৮ হাজার টাকায় বিক্রি করছে। এটা বিদেশগামী কর্মীদের ওপর মারাত্মক জুলুম।

তিনি বলেন, ইউএস-বাংলা ১ লাখ ২ হাজার টাকায় বিক্রি করছে। এটা ডাকাতি ছাড়া কিছু নয়।

২০২৫ সাল পর্যন্ত মালয়েশিয়ার মোট শ্রমিকের ১৫ শতাংশ অন্যান্য দেশ থেকে আগতদের জন্য নির্ধারিত করে দেশটির সরকার। মালয়েশিয়ার অভিবাসন বিভাগের তথ্যমতে, ১৫ মার্চ পর্যন্ত দেশটিতে ২০ লাখ বিদেশি শ্রমিক কাজ করছেন।

Header Ad

রাজধানী ঢাকা ও পার্শ্ববর্তী অঞ্চলে চলছে না মোবাইল ডাটা

প্রতীকী ছবি। ছবি: সংগৃহীত

রাজধানী ঢাকার অধিকাংশ জায়গাতেই মোবাইল ডাটা ব্যবহার করে ফেসবুক ও মেসেঞ্জার ব্যবহার করা যাচ্ছে না। প্রায় ২৪ ঘণ্টারও বেশি সময় ধরে এমন সমস্যার সম্মুখিন হচ্ছেন ব্যবহারকারীরা। তবে ব্রডব্যান্ড লাইনে নিরবচ্ছিন্ন ইন্টারনেট সেবা অব্যাহত রয়েছে।

রাজধানী ঢাকার ধানমন্ডি, নীলক্ষেত, পলাশী, সায়েন্সল্যাব, গ্রিনরোড, যাত্রাবাড়ী এবং পার্শ্ববর্তী নারায়ণগঞ্জ, টঙ্গী এবং গাজীপুর সিটির বিভিন্ন এলাকায়ও মোবাইল ডাটা দিয়ে ইন্টারনেট ব্যবহার করা যাচ্ছে না। একইসঙ্গে দেশের বিভিন্ন জায়গায় বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রিক এলাকাগুলোতে একই অবস্থার খবর পাওয়া গেছে।

গ্রাহকরা অভিযোগ জানিয়ে বলছেন, গত পরশুদিন মঙ্গলবার (১৬ জুলাই) দিবাগত মধ্যরাত থেকেই এমন অবস্থা শুরু হয়েছে। তবে গতকাল বুধবার (১৭ জুলাই) দুপুর পর্যন্ত মোবাইল ডাটা কিছুটা কাজ করলেও এরপর থেকে একেবারেই ব্যবহার করা যাচ্ছে না। ডাটা চালু করার পর ফোরজি সাইন এলেও ফেসবুক ও মেসেঞ্জার কাজ করছে না। পর্যাপ্ত ডাটা থাকার পরও অনলাইনে কোনো কিছুই করা যাচ্ছে না। গ্রামীণফোন, বাংলালিংক, রবি, এয়ারটেল এবং টেলিটকের সিম ব্যবহারকারী সবার একই অবস্থা। তবে স্বাভাবিক রয়েছে ব্রডব্যান্ড লাইন। বাসা-বাড়িতে এবং বিভিন্ন অফিসে সংযোগ করা লাইনে ইন্টারনেট ব্যবহার করতে কোনো সমস্যা হচ্ছে না।

যদিও বিষয়টি নিয়ে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি) কিংবা মোবাইল অপারেটর কোম্পানিগুলোর পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিক কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি। তবে নাম পরিচয় প্রকাশ না করার শর্তে একটি মোবাইল অপারেটর কোম্পানির এক কর্মকর্তা বলেন, মোবাইল ডাটার ব্যবহারে আমাদের পক্ষ থেকে কোনো সমস্যা নেই। আগে যেমন ব্যবস্থাপনা ছিল এখনও ঠিক তেমনটিই আছে। তবে বিভিন্নভাবে এর গতি পরিমিত করা বা গ্রাহক পর্যায়ে ইন্টারনেট সেবার গতি কমানোর সুযোগ রয়েছে।

অন্যদিকে দেশের সরকারি-বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় এবং আশপাশের এলাকায় ফোরজি নেটওয়ার্ক বন্ধ করার মৌখিক নির্দেশনা সরকারের নিয়ন্ত্রক সংস্থার পক্ষ থেকে দেওয়া হয়েছে বলেও জানা গেছে।

উল্লেখ্য, সরকারি চাকরিতে নিয়োগের ক্ষেত্রে কোটা বাতিলের দাবিতে দেশব্যাপী শিক্ষার্থীদের আন্দোলন এবং সংঘর্ষের ঘটনার পর থেকেই মোবাইল ডাটা ব্যবহারের ক্ষেত্রে ধীরগতির মুখোমুখি হতে হচ্ছে গ্রাহকদের। অবশ্য ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, কোটা আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের মৃত্যুর মিথ্যা তথ্য ছড়িয়ে দেওয়ার ফলে সারা দেশে ব্যাপক সংঘর্ষ ও প্রাণহানির মতো ঘটনা ঘটেছে। সেজন্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কোনো কিছু দেখে যাচাই-বাছাই না করে শিক্ষার্থীদের কোনো সিদ্ধান্ত না নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

রিয়াল মাদ্রিদে আরো এক বছর লুকা মদ্রিচ

রিয়াল মাদ্রিদে আরো এক বছর লুকা মদ্রিচ। ছবি: সংগৃহীত

রিয়াল মাদ্রিদের সঙ্গে আরও এক বছরের চুক্তি করলেন লুকা মদ্রিচ। ২০২৫ সালের ৩০ জুন পর্যন্ত সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতেই থাকছেন এই ক্রোয়াট মিডফিল্ডার৷

বুধবার (১৭ জুলাই) মদ্রিচের সঙ্গে চুক্তির বিষয়টি নিজেদের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে দেওয়া এক বিবৃতিতে নিশ্চিত করেছে রিয়াল। আরও এক বছর সান্তিয়াগো বার্নাব্যুর দলটিতে থাকবেন তিনি। চুক্তির মেয়াদ আগামী ২০২৫ সালের ৩০ জুন পর্যন্ত। রিয়ালের সভাপতি ফ্লোরেন্তিনো পেরেজের উপস্থিতিতে চুক্তি স্বাক্ষরের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করার পর জার্সি তুলে দেওয়া হয়।

সবশেষ ২০২৩-২৪ মৌসুমে লা লিগা ও চ্যাম্পিয়নস লিগজয়ী রিয়ালের দ্বিতীয় অধিনায়ক ছিলেন মদ্রিচ। আর প্রথম অধিনায়ক ছিলেন নাচো ফার্নান্দেজ। স্প্যানিশ এই ডিফেন্ডারের সঙ্গে আর চুক্তি নবায়ন করছে না লস ব্লাঙ্কোরা।

গত মৌসুমে রিয়ালের হয়ে মোট ৪৬ ম্যাচে মাঠে নামেন মদ্রিচ। তবে ক্লাবটির কোচ কার্লো আনচেলত্তি তরুণদের প্রাধান্য দেওয়ায় শুরুর একাদশে তিনি ছিলেন মোটে ২৩ ম্যাচে। তারপরও লা লিগা ও চ্যাম্পিয়নস লিগের শিরোপা জয়ে তার ছিল দারুণ ভূমিকা।

ফুটবলে নয় ক্রিকেটের বৈশ্বিক পুরস্কার জিতে চমক মেক্সিকোরফুটবলে নয় ক্রিকেটের বৈশ্বিক পুরস্কার জিতে চমক মেক্সিকোর রিয়ালের জার্সিতে সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে মদ্রিচ মাঠে নেমেছেন ৫৩৪ ম্যাচে, গোল করেছেন ৩৯টি। জাতীয় দলের হয়ে তার খেলা ম্যাচের সংখ্যা ১৭৮। ক্রোয়েশিয়ার ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি ম্যাচ খেলা ফুটবলার তিনি। ২০১৮ সালে ব্যালন ডি'অর জেতেন লুকা মদ্রিচ।

করোনায় আক্রান্ত মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। ছবি: সংগৃহীত

আবারও করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। হোয়াইট হাউসের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, তিনি করোনার মৃদু উপসর্গে আক্রান্ত হয়েছেন। মার্কিন ডেমোক্র্যাটিক এই প্রেসিডেন্ট অবশ্য আগেই করোনার টিকা নিয়েছিলেন।

বৃহস্পতিবার (১৮ জুলাই) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন কোভিড-১৯ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন এবং তিনি এ সংক্রান্ত কিছু হালকা উপসর্গে ভুগছেন বলে হোয়াইট হাউস জানিয়েছে।

বাইডেনের প্রেস সেক্রেটারি কারিন জ্যঁ-পিয়ের বলেছেন, মার্কিন প্রেসিডেন্টকে টিকা দেওয়া হয়েছে এবং তিনি বুস্টার ডোজও নিয়েছেন। এর আগে তিনি দুবার কোভিড পরীক্ষায় পজিটিভ হয়েছিলেন।

বিবিসি বলছে, করোনায় আক্রান্ত বলে শনাক্ত হওয়ার আগে ৮১ বছর বয়সী প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনকে বুধবার লাস ভেগাসে সমর্থকদের সাথে দেখা করতে এবং সেখানে একটি অনুষ্ঠানে বক্তৃতা করতে দেখা গিয়েছিল। রাতে নির্বাচনী প্রচারণার অনুষ্ঠানে ভাষণ দেওয়ার কথা থাকলেও পরে সেটি বাতিল করেন তিনি।

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার এই খবরটি প্রেসিডেন্ট বাইডেন এমন এক সময়ে পেলেন যখন গত জুনে ট্রাম্পের সঙ্গে মুখোমুখি বিতর্কে খারাপ পারফরম্যান্সের কারণে নির্বাচনী দৌড় থেকে সরে যাওয়ার জন্য তিনি ক্রমবর্ধমান চাপের সম্মুখীন হয়েছেন।

কারিন জ্যঁ-পিয়ের বলেছেন, করোনায় আক্রান্ত হওয়ায় প্রেসিডেন্ট বাইডেন এখন তার ডেলাওয়্যারের বাড়িতে আইসোলেশনে থাকবেন এবং সেই সময়ে সেখান থেকেই নিজের সমস্ত দায়িত্ব সম্পূর্ণরূপে পালন করবেন তিনি।

প্রেসিডেন্ট বাইডেনের ডাক্তার কেভিন ও’কনর বলেছেন, বাইডেনের সর্দি এবং কাশিসহ ওপরের শ্বাসযন্ত্রের উপসর্গগুলো রয়েছে এবং তাকে প্যাক্সলোভিডের প্রথম ডোজ দেওয়া হয়েছে।

দিনের প্রথম ইভেন্টের সময় ভালো বোধ করলেও পরে তিনি করোনা পরীক্ষায় পজিটিভ হন বলে ড. ও’কনর জানান।

সর্বশেষ সংবাদ

রাজধানী ঢাকা ও পার্শ্ববর্তী অঞ্চলে চলছে না মোবাইল ডাটা
রিয়াল মাদ্রিদে আরো এক বছর লুকা মদ্রিচ
করোনায় আক্রান্ত মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন
আজ কোটা আন্দোলনকারীদের ‘কমপ্লিট শাটডাউন’ কর্মসূচি
হানিফ ফ্লাইওভারে কোটা আন্দোলন নিয়ে সংঘর্ষ, গুলিতে তরুণ নিহত
শাবিপ্রবিতে ছাত্ররাজনীতি নিষিদ্ধ ঘোষণা
যাত্রাবাড়ীতে আন্দোলনকারীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ
ফরিদপুরে দুই বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ৩, আহত ৩০
কাল সারা দেশে বিক্ষোভ ডেকেছেন চরমোনাই পীর
বৃহস্পতিবার সারাদেশে ‘কমপ্লিট শাটডাউন’ ঘোষণা কোটাবিরোধীদের
কোটা নিয়ে যেসব কথা বললেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা
ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থীর মাথায় পুলিশের গুলি
গায়েবানা জানাজা বলে কিছু নেই বলে ইমামকে নিয়ে গেল ওসি আমিনুল
ঢাবিতে গায়েবানা জানাজায় কফিন ছুঁয়ে আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার শপথ
রণক্ষেত্র জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়, আহত শতাধিক
বৃহস্পতিবার ঢাকায় মুক্তিযোদ্ধা সমাবেশের ডাক
সাংবাদিকদের মাঝে সাউন্ড গ্রেনেড মারলো পুলিশ, অন্তত তিন সংবাদকর্মী আহত
সন্ধ্যায় জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী
বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়কে উত্তাল শিক্ষার্থীরা, উত্তরবঙ্গের ২২ জেলার প্রবেশপথ অবরোধ
কোটা সংস্কার আন্দোলন হচ্ছে মুক্তিযুদ্ধের প্রকৃত চেতনা: আসিফ নজরুল