নওগাঁয় ১২ মণ ভেজাল আখের গুড় জব্দ, জরিমানা

২১ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৮:৩৬ পিএম | আপডেট: ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১২:৩৩ এএম


নওগাঁর মহাদেবপুর উপজেলার মোগলিশপুর এলাকায় ভোক্তা অধিকার অধিদপ্তর ও র‌্যাব-৫ যৌথ অভিযান চালিয়ে ১২ মণ ভেজাল আখের গুড় জব্দ করেছে। এছাড়া ওই কারখানা থেকে গুড়ে মেশানোর জন্য রাখা বিপুল পরিমাণ চিনি, চিটাগুড়, সুজি, ময়দাসহ বিভিন্ন উপকরণও জব্দ করা হয়েছে। এ সময় ভেজাল গুড় তৈরির অভিযোগে কারখানার মালিককে এক লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। বুধবার (২১ সেপ্টেম্বর) সকাল ১০টা থেকে পোনে ১টা পর্যন্ত মহাদেবপুর উপজেলার মোগলিশপুর এলাকায় ও নওগাঁ শহরের গোস্তহাটি ও ঘোষপাড়া এলাকায় এ অভিযান পরিচালনা করেন ভোক্তা ও র‌্যাব।

নওগাঁ ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের তথ্য জানান, ব্যাটালিয়ন-৫ (র‌্যাব-৫)- এর জয়পুরহাট ক্যাম্পের সদস্যদের সহযোগিতায় বুধবার সকালে মহাদেবপুর উপজেলার মোগলিশপুর গ্রামের জিল্লুর রহমানের বাড়িতে অভিযান চালানো হয়। এ সময় তাঁর বাড়িতে ভেজাল গুড় তৈরির কারখানার সন্ধ্যান পাওয়া যায়। তিনি আখের নিন্নমানের গুড়ের সঙ্গে বিভিন্ন উপকরণ ব্যবহার করে বিপুল পরিমাণ ভেজাল গুড় তৈরি করে বাজারজাত করার স্বীকার করেন। পরে তাঁর বাড়ি থেকে ৪৮০ কেজি (১২ মণ) ভেজাল আখের গুড় জব্দ করা হয়।

এছাড়া গুড়ে মেশানোর জন্য রাখা বিপুল পরিমাণ চিনি, চিটাগুড় (গরুর খাদ্য), সুজি, ময়দাসহ বিভিন্ন উপকরণ জব্দ করা হয়। অভিযানে নেতৃত্ব দেন নওগাঁ ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক শামীম হোসেন। এ সময় তিনি অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে চিনি, চিটাগুড়, ময়দা, সুজিসহ বিভিন্ন ক্ষতিকর উপকরণ দিয়ে ভেজাল গুড় তৈরির অভিযোগে কারখানার মালিককে ১ লাখ টাকা জরিমানা করেন। জব্দ করা ভেজাল গুড় ও অন্যান্য মালামাল উপস্থিত জনতার সামনে ধ্বংস করা হয়।

এছাড়া সিপিসি-৩ জয়পুরহাট র‍্যাব ক্যাম্পের কোম্পানি অধিনায়ক মেজর মোস্তফা জামান ও আর্টিলারি ও কোম্পানি উপ-অধিনায়ক সিনিয়র এএসপি মো. মাসুদ রানা নেতৃত্বে নওগাঁ শহরের গোস্তহাটি ও ঘোষপাড়া এলাকায় অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে ঢাকনা বিহীন পাত্রে মিষ্টি সংরক্ষণ মিষ্টিতে পোকামাকড়ের উপস্থিতি এবং খোলা লবণ ব্যবহারের অপরাধে নওগাঁ মিষ্টান্ন ভাণ্ডারের মালিককে ৫০ হাজার টাকা, সাব্বির হোটেলের মালিককে ২০ হাজার টাকা এবং নিপেন ঘোষ দই ঘরের মালিককে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর।
এএজেড


বিভাগ : সারাদেশ