সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪ | ২ বৈশাখ ১৪৩১
Dhaka Prokash

পরীক্ষার্থীরা মুচলেকায় ছাড় পেলেও মাদরাসা প্রধানদের বিরুদ্ধে মামলার নির্দেশ

ছবি: ঢাকাপ্রকাশ

নওগাঁর সাপাহার উপজেলার সরফতুল্লাহ ফাজিল মাদরাসা কেন্দ্র থেকে আটক সেই ৫৯জন ভূয়া দাখিল পরীক্ষার্থীকে মুচলেকায় ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। আর ভূয়া পরীক্ষার্থী দিয়ে পরীক্ষা দেওয়ানোর ঘটনায় ওই সকল শিক্ষার্থীদের বহিষ্কার করা হয়েছে। সেই সাথে ৮টি মাদ্রাসার প্রধানদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

তবে রাত ৮ টা পর্যন্ত কেউ মামলা করতে আসেনি বলে বিষয়টি ঢাকাপ্রকাশ-কে মুঠোফোনে নিশ্চিত করেছেন থানার অফিসার ইনচার্জ পলাশ চন্দ্র দেব।

তিনি বলেন, ওই কেন্দ্রে ৮ টি মাদরাসার পরীক্ষার্থী ছিল। ওই ৮ মাদরাসার প্রধানদের বিরুদ্ধে মামলা করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলেও জানান তিনি।

এর আগে মঙ্গলবার ২০ ফেব্রুয়ারি সকালে আরবী ২য় পত্র পরীক্ষা চলাকালীন সময়ে প্রথমে তাদের আটক করা হয়। এরপর বিষয়টি নিয়ে তুঘলকি কান্ড দেখা দেয়। একই কেন্দ্র থেকে তারা আটক হলেও আটককৃতদের বয়স ১৮বছরের নিচে হওয়ায় অভিভাবকদের জিম্মায় মুচলেকা নিয়ে ছেড়ে দিয়েছেন সাপাহার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এবং সচিবকে ওই মাদ্রাসার প্রধানদের বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলা দায়ের করার নির্দেশ দিয়েছেন।

ভূয়া পরীক্ষার্থী দিয়ে পরীক্ষা দেওয়ানো মাদ্রাসাগুলো হলো, সাপাহারের সিমুলডাঙা দাখিল মাদ্রাসা (সদ্য এমপিওভুক্ত), মানিকুড়া দাখিল মাদ্রাসা (সদ্য এমপিওভুক্ত), বলদিয়াঘাট দাখিল মাদ্রাসা (সদ্য এমপিওভুক্ত), পলাশডাঙা দাখিল মাদ্রাসা, দেওপাড়া দাখিল মাদ্রাসা, আলাদিপুর দাখিল মাদ্রাসা, তুলসিপাড়া দাখিল মাদ্রাসা, আন্ধারদীঘি দাখিল মাদ্রাসা। এরমধ্যে সদ্য এমপিওভুক্ত মাদ্রাসা ৩ টি এবং ননএমপিওভুক্ত মাদ্রাসা ৫টি।

কেন্দ্র সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার সকালে আরবী ২য় পত্র বিষয়ে পরীক্ষা চলাকালীন সময়ে কিছু ভূয়া পরীক্ষার্থী এই কেন্দ্রে পরীক্ষা দিচ্ছেন সচিবের এমন নির্দেশে কক্ষ পরিদর্শকগণ খাতা স্বাক্ষর করার সময় বিষয়টি নিশ্চিত হয়ে কেন্দ্র সচিবকে জানান। সেই তথ্যের ভিত্তিতে তাৎক্ষণিকভাবে কেন্দ্র সচিব উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে জানালে সাথে সাথেই তিনি কেন্দ্রে অভিযান চালান। এসময় শিক্ষার্থীদের প্রবেশপত্র, রেজিষ্ট্রেশন কার্ড, ছবিসহ প্রয়োজনীয় সবকিছু যাচাই-বাছাই করেন। যাচাই-বাছাই শেষে এই ৫৯ জন ভুয়া পরীক্ষার্থীকে শনাক্ত করেন।

সূত্র আরও জানা, এই কেন্দ্রে ৪০টি মাদ্রাসার পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। এখানে ৮৯৮ জন পরীক্ষার্থী এবারে পরীক্ষা দিচ্ছেন। এরমধ্যে সিমুলডাঙা দাখিল মাদ্রাসা থেকে ১১ জন, পলাশডাঙা দাখিল মাদ্রাসা থেকে ৮ জন, দেওপাড়া সিংপাড়া দাখিল মাদ্রাসা থেকে ৩ জন, আলাদিপুর দাখিল মাদ্রাসা থেকে ১জন, তুলসিপাড়া দাখিল মাদ্রাসা থেকে ১৪ জন, বলদিয়াঘাট দাখিল মাদ্রাসা থেকে ২ জন, আন্ধারদীঘি দাখিল মাদ্রাসা থেকে ১৭ জন, মানিকুড়া দাখিল মাদ্রাসা থেকে ৩ জন ভূয়া পরীক্ষার্থী কেন্দ্রে এসে পরীক্ষা দিচ্ছিলেন। পরবর্তীতে তাদের ছেড়ে দিলেও প্রকৃত ৫৯ পরীক্ষার্থীদের কক্ষ পরিদর্শক বহিষ্কার করেছেন।

কেন্দ্র সচিব মো. মোসাদ্দেক হোসেন বলেন, আমি গোপন সূত্রে জানতে পেরে তাৎক্ষণিক ভাবে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তাকে অবহিত করি। এরপর ইউএনও ও উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা স্যার এসে কক্ষ পরিদর্শকদের সহায়তায় এই ৫৯ জন ভুয়া পরীক্ষার্থীদের সনাক্ত করেন। এরপর তাদের বয়স ১৮ বছরের নিচে হওয়ায় মুচলেকা নিয়ে অভিভাবকদের নিকট হস্তান্তর করা হয় এবং ওই ৮টি মাদ্রাসার প্রধানের বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলা দায়ের করার নির্দেশ দিয়েছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা। সেই মামলা দায়ের করার বিষয়টি এখন প্রক্রিয়াধীন।

জানতে চাইলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাসুদ হোসেন মুঠোফোনে বলেন, ওই সকল শিক্ষার্থী বা পরীক্ষার্থীদের সঠিকভাবে যাচাই-বাছাই এর দায়িত্ব ছিল স্ব-স্ব প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকদের। তারা সেই প্রতিষ্ঠানের পরীক্ষার্থী ছিল কিনা সেটা তাদের ভালো করে যাচাই করা উচিত ছিল। তাই কেন্দ্র সচিবকে ওই ৮টি প্রতিষ্ঠান প্রধানের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

হিলি স্থলবন্দরে টানা বন্ধের পর আমদানি-রপ্তানি শুরু

হিলি স্থলবন্দর। ছবি: সংগৃহীত

পবিত্র ঈদুল ফিতর ও পহেলা বৈশাখ উপলক্ষ্যে টানা ৬দিন বন্ধ থাকার পর আজ সোমবার (১৫ এপ্রিল) থেকে হিলি স্থলবন্দর দিয়ে ফের পণ্য আমদানি-রপ্তানি বাণিজ্য শুরু হয়েছে। ফলে স্বাভাবিক হয়েছে বন্দরের অভ্যন্তরীণ সকল প্রকার কার্যক্রম।

আজ সকাল ১১টায় ভারত থেকে আমদানি-রপ্তানিকৃত পণ্যবাহী ট্রাক বাংলাদেশে প্রবেশের মাধ্যমে এই কার্যক্রম শুরু হয়েছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে হিলি স্থলবন্দর আমদানি-রপ্তানিকারক গ্রুপের সভাপতি হারুন উর রশিদ জানান, পবিত্র ঈদুল ফিতর ও পহেলা বৈশাখ উপলক্ষ্যে গত ৯-১৪ এপ্রিল পর্যন্ত ৬ দিন হিলি স্থলবন্দর দিয়ে বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে পণ্য আমদানি-রপ্তানি বন্ধ ছিল। সোমবার থেকে এই বন্দর দিয়ে দুই দেশের মধ্যে ফের আমদানি-রপ্তানি শুরু হয়েছে। সকাল ১১টা থেকে ভারতীয় পণ্যবাহী ট্রাক বন্দরে প্রবেশ করছে। এরপর ভারতীয় পণ্যবাহী ট্রাক থেকে পণ্য আনলোড হয়ে বাংলাদেশি ট্রাকে লোড করে ব্যবসায়ীরা দেশের বিভিন্ন স্থানে নিয়ে যাচ্ছে। ফলে বন্দরে অভ্যন্তরীণ কার্যক্রম চালু হওয়ায় কর্মচাঞ্চল্যতা ফিরে এসেছে।

তিনি আরও জানান, ঈদের মধ্যে আলু সহ কিছু পণ্যের দাম বেড়ে গেছে। আজ থেকে দেশের বন্দরগুলি দিয়ে আমদানি-রপ্তানি কার্যক্রম শুরু হওয়ায় সেসব পণ্যের দাম কমে আসবে।

হিলি স্থলবন্দরের বেসরকারি অপারেটর পানামা হিলি পোর্ট লিংক লিমিটেডের জনসংযোগ কর্মকর্তা সোহরাব হোসেন মল্লিক জানান, সকাল ১১টা থেকে আমদানিকৃত পণ্যবাহী ভারতীয় ট্রাকগুলি ওয়্যারহাউজে প্রবেশ করছে। এতে করে বন্দর ব্যবহারকারী ও শ্রমিকদের মধ্যে ব্যস্ততা বেড়েছে। যেসব পণ্যের কাস্টমস শুল্ককর পরিশোধের চালান আমাদের কাছে আসছে আমরা তা দেখে দ্রুততার সাথে সেসব পণ্যবাহী বাংলাদেশি ট্রাকগুলিকে ওয়্যারহাউজ থেকে বের হওয়ার অনুমতি দিচ্ছি। ঈদ ও পহেলা বৈশাখের কারণে হিলি দিয়ে পণ্য আমদানি-রপ্তানি কার্যক্রম বন্ধ ছিল।

হিলি স্থল শুল্ক স্টেশনের একজন রাজস্ব কর্মকর্তা জানান, ৬দিন আমদানি-রপ্তানি বন্ধ থাকার পর সোমবার থেকে আবার শুরু হয়েছে। কিছু পণ্য ছাড় করণের জন্য ব্যবসায়ীরা অফিসে কাগজপত্র দাখিল করেছেন। আমদানিকৃত পণ্যের সঠিকতা যাচাই ও মূল্য নির্ধারণের পর রাজস্ব পরিশোধ সাপেক্ষে ব্যবসায়ীদের পণ্য ছাড়করণ করা হচ্ছে।

এদিকে হিলি ইমিগ্রেশন চেকপোস্টের অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শেখ আশরাফুল বলেন, ঈদুল ফিতর ও পহেলা বৈশাখ উপলক্ষ্যে হিলি স্থলবন্দর দিয়ে ৬দিন আমদানি-রপ্তানি থাকলেও এই সময়ে ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট ব্যবহার করে ভিসা-পাসপোর্টধারী যাত্রীদের বাংলাদেশ-ভারত পারাপার চলমান ছিল। যা অব্যাহত আছে।

মুস্তাফিজের আইপিএলে খেলার ছুটি বাড়াল বিসিবি

ক্রিকেটার মুস্তাফিজুর রহমান। ছবি: সংগৃহীত

আইপিএলের চলতি আসরে বাংলাদেশ থেকে প্রতিনিধিত্ব করছেন কেবল মুস্তাফিজুর রহমান। তবে জাতীয় দলের বাঁ-হাতি পেসারকে পুরো আসরের জন্য ছাড়পত্র দেয়নি বিসিবি। জিম্বাবুয়ে সিরিজের আগে তার দলের ক্যাম্পে যোগ দেওয়ার কথা।

ঘরের মাঠে বাংলাদেশ ও জিম্বাবুয়ে ৩ মে থেকে পাঁচ ম্যাচের টি-২০ সিরিজ খেলবে। মুস্তাফিজের ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত আইপিএলে খেলার ছাড়পত্র দিয়েছিল বিসিবি। তবে চেন্নাই সুপার কিংসের হয়ে ভালো খেলা কাটার মাস্টার খ্যাত ফিজের ওই ছুটি বাড়িয়েছে বোর্ড।

বিসিবির ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের সহকারী ম্যানেজার শাহরিয়ার নাফীস এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। মুস্তাফিজের এনওসির মেয়াদ ১ দিন বাড়িয়ে ১ মে পর্যন্ত করেছে বিসিবি। ১ মে চেন্নাই বনাম পাঞ্জাবের ম্যাচ রয়েছে। সব ঠিক থাকলে সেই ম্যাচ খেলে পরদিন ২ মে বাংলাদেশে ফিরবেন মুস্তাফিজ।

নাফিস বলেন, 'মুস্তাফিজের একদিন ছুটি বাড়ানো হয়েছে। ১ তারিখ ম্যাচ আছে তার, সেই ম্যাচের পরদিন সে দেশে ফিরবে।'

মূলত জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজে মুস্তাফিজকে খেলানোর পরিকল্পনা বিসিবির। তাই আইপিএলের পুরো আসরের জন্য মুস্তাফিজকে এনওসি দেয়নি বোর্ড। আগামী ৩ মে থেকে ঘরের মাঠে রোডেশিয়ানদের বিপক্ষে ৫ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলবে বাংলাদেশ।

এদিকে আইপিএলের চলমান আসরে এখন পর্যন্ত ৫ ম্যাচ খেলে ১০ উইকেট শিকার করেছেন এই পেসার। ওভার প্রতি রান খরচ করেছেন ৯ এর একটু বেশি। ৫ ম্যাচে ১০ উইকেট নিয়ে সেরা উইকেট শিকারীর তালিকায় তিনে আছেন এই বাঁহাতি।

নরসিংদীতে ইউপি সদস্যকে প্রকাশ্যে গুলি করে ও গলা কেটে হত্যা

নিহত ইউপি সদস্য রুবেল আহম্মেদ। ছবি: সংগৃহীত

নরসিংদীতে প্রকাশ্য দিবালোকে রুবেল আহম্মেদ নামে এক ইউপি সদস্যকে গুলি করার পর গলা কেটে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা।

সোমবার (১৫ এপ্রিল) দুপুর পৌনে ২টার দিকে নরসিংদীর আমদিয়া ইউনিয়নের পাকুড়িয়া বাজারে এই ঘটনা ঘটে। নিহত রুবেল আহম্মেদ ওরফে বডি রুবেল আমদিয়া ইউনিয়ন পরিষদের ৮নং ওয়ার্ডের সদস্য। তিনি ভৌয়ম গ্রামের শাজাহান মিয়ার ছেলে।

পুলিশ জানায়, রুবেল দুপুরে পাকুড়িয়া বাজার থেকে মোটরসাইকেলে করে বাড়ি যাচ্ছিলেন। এসময় প্রাইভেটকারে করে আসা কয়েকজন তাকে লক্ষ্য করে ছয় রাউন্ড গুলি ছোড়ে। এতে গুলিবিদ্ধ হয়ে রুবেল মাটিতে লুটিয়ে পড়লে দুর্বৃত্তরা বুকের ওপর বসে গলা কেটে তার মৃত্যু নিশ্চিত করে চলে যায়।

জেলা পুলিশের গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) একটি সূত্র বলছে, বিগত আমদিয়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে রুবেল আহাম্মেদের প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী ছিলেন ইমরুল। ওই সময় দুই প্রার্থীর মধ্যে একাধিক বার হামলা, মামলা ও ভাচুরের ঘটনা ঘটে। ওই নির্বাচনে কেন্দ্রে প্রভাব খাটিয়ে রুবেল বিজয়ী হন বলে অভিযোগ ওঠে। এ নিয়ে ইমরুলের সঙ্গে তার দ্বন্দ্ব চলছিল। এর জের ধরে এ হত্যাকাণ্ড ঘটে থাকতে পারে।

আমদিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ ইবনে রহিজ মিঠু বলেন, পরিকল্পিতভাবে রুবেলকে হত্যা করা হয়েছে। ঘটনার পরপরই আমি ঘটনাস্থলে ছুটে এসেছি। নির্বাচন কেন্দ্রীক বিরোধ নাকি অন্য কোনো শত্রুতার কারণে তাকে হত্যা করা হয়েছে, তা সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে বের হয়ে আসবে। আমরা এর দৃষ্টান্তমূলক বিচার দাবি করছি।

মাধবদী থানার উপপরিদর্শক (এসআই) ফজলে রাব্বি ঘটনার সতত্যা নিশ্চিত করে বলেন, খবর পেয়ে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। হত্যার রহস্য উদঘাটনে তদন্ত করছে পুলিশ।

সর্বশেষ সংবাদ

হিলি স্থলবন্দরে টানা বন্ধের পর আমদানি-রপ্তানি শুরু
মুস্তাফিজের আইপিএলে খেলার ছুটি বাড়াল বিসিবি
নরসিংদীতে ইউপি সদস্যকে প্রকাশ্যে গুলি করে ও গলা কেটে হত্যা
৫৪ জেলায় বইছে তাপপ্রবাহ, তিন বিভাগে বৃষ্টির আভাস
‘একীভূত হচ্ছে পাঁচ ব্যাংক, বাকি সিদ্ধান্ত পরে’
ঢাকায় পৌঁছেছেন টাইগারদের নতুন কোচ নাথান কিয়েলি
বাংলাদেশের স্বাধীনতাকে ধ্বংস করার জন্য বিএনপির জন্ম: ওবায়দুল কাদের
গোবিন্দগঞ্জে অটোচালকের গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার
চট্টগ্রামে ২টি বস্তিতে আগুন, পুড়ল ২০০ ঘর
পার্পল ক্যাপের লড়াইয়ে মুস্তাফিজের অবস্থান এখন কোথায়?
পাঁচ দিনের ছুটিতে পদ্মা সেতুতে ১৪ কোটি টাকা টোল আদায়
মধ্যপ্রাচ্য ধ্বংসাত্মক যুদ্ধের দ্বারপ্রান্তে রয়েছে: জাতিসংঘের মহাসচিব
গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডে বাংলাদেশের ১৬০ কেজি ওজনের পাঙ্গাস
প্রবাসী আয়ের শীর্ষে ঢাকা, তারপর চট্টগ্রাম সিলেট কুমিল্লা
প্রথমবারের মতো কান চলচ্চিত্র উৎসবে সৌদি আরবের সিনেমা
ইরানে হামলার পরিকল্পনা চূড়ান্ত করল ইসরায়েল
৬ বিভাগে বইছে তাপপ্রবাহ, আরও বাড়বে গরমের দাপট
এত অল্প সময়ে জাহাজ ও নাবিকদের মুক্তির ঘটনা নজিরবিহীন: নৌপ্রতিমন্ত্রী
৬৭০ পদে পেট্রোবাংলায় বিশাল নিয়োগ, আবেদন অনলাইনে
মামার বিয়েতে এসে নদীতে নিখোঁজ শিশু, ২১ ঘণ্টা পর ভেসে উঠলো মরদেহ