বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ | ১৪ ফাল্গুন ১৪৩০
বেটা ভার্সন
Dhaka Prokash

বাংলাদেশের ক্রিকেটকে শক্তিশালী করতে চান ডেভিড হেম্প

জাতীয় দলের পাইপ লাইন সমৃদ্ধ করার জন্য খেলোয়াড় সরবরাহ যাতে মানসম্পন্ন হয়, তার প্ল্যাটফর্ম হলো এইচপি বা হাই পারফরম্যান্স ক্যাম্প। জাতীয় দল ও এর আশপাশে থাকা ২৫ ক্রিকেটারকে নিয়ে বুধবার (২৪ মে) থেকে শুরু হয়েছে এবারের ক্যাম্প। এই ক্যাম্প হবে তিন ভাগে। ২৪ থেকে ৩১ মে পর্যন্ত মিরপুরে অনুষ্ঠিত হবে ফিজিক্যাল ট্রেনিং। ১ থেকে ৮ জুন রাজশাহীতে হবে স্কিল ট্রেনিং। এরপর শেষ ধাপ অনুষ্ঠিত হবে বগুড়ায় ৯ থেকে ১৬ জুন পর্যন্ত। এবারের ক্যাম্পে দেখাশোনা করার জন্য কোচ হিসেবে নিয়ে আসা হয়েছে বারমুডায় জন্মগ্রহণ করা ইংল্যান্ডের কাউন্টি খেলার অভিজ্ঞতাসম্পন্ন ডেভিড হেম্পকে।

ডেভিড হেম্প বাঁহাতি ব্যাটসম্যান ও ডানহাতি মিডিয়াম পেস বোলার। তার জন্ম ১৯৭০ সালের ৮ নভেম্বর বারমুডার হ্যামিল্টনে। তিনি কাউন্টি ক্রিকেটে গ্লামারগন ও ওয়ারউইকশায়ারের হয়ে খেলেছেন। ১৯৯১ সালে যোগ দেন গ্লামারগনে। ওয়ারউইকশায়ারে খেলা শুরু করেন ১৯৯৭ সালে। এরপর আবার গ্লামারগনে ফিরে আসেন ২০০২ সালে। ইংল্যান্ড জাতীয় দলে কখনো খেলার সুযোগ না পেলেও ‘এ’ দলের হয়ে ১৯৯৪-৯৫ সালে ভারত ও বাংলাদেশ সফর করে গেছেন।

ইংল্যান্ড জাতীয় দলে খেলার সম্ভাবনা ক্ষীণ দেখে তিনি ফিরে যান নিজ দেশে বারমুডায়। ২০০৬ সালে কেনিয়ার বিপক্ষে একদিনের ও ২০০৮ সালে স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি অভিষেক হয়। ২২টি একদিনের ম্যাচ খেলে তিনি রান করেন ৬৪১। ২০০৯ সালে পচেফস্ট্রুমে কেনিয়ার বিপক্ষে অপরাজিত ১০২ রানের একটি ইনিংসও আছে তার। হাফ সেঞ্চুরি ছিল ৪টি। বল হাতে উইকেট ছিল ১টি। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে ম্যাচ খেলে মাত্র ২টি। রান করেছিলেন ২০। এটিই ছিল তার সর্বোচ্চ রান। এই ২ ম্যাচে তিনি কোনো বোলিং করেননি।

২০০৭ সালে তিনি বারমুডার হয়ে উইন্ডিজে অনুষ্ঠিত বিশ্বকাপ ক্রিকেটও খেলেছেন। বারমুডা ছিল বাংলাদেশের গ্রুপে। দ্বিতীয় ম্যাচে তিনি ভারতের বিপক্ষে অপরাজিত ৭৬ রানের ইনিংস খেলেছিলেন। এ ছাড়া শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে প্রথম ম্যাচে ১৪ রান করার পর বাংলাদেশের বিপক্ষে শেষ ম্যাচে কোনো রান করতে পারেননি।

৫২ বছর বয়সী ডেবিড হেম্প প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে খেলেছেন ২৭১টি ম্যাচ। ৪৬২ ইনিংসে ব্যাট করে রান করেছিলেন ১৫ হাজার ৫২০। ৩০টি সেঞ্চুরি আর ৮৬টি হাফ সেঞ্চুরি এসেছিল তার ব্যাট থেকে। সর্বোচ্চ রান ছিল অপরাজিত ২৪৭। লিস্ট ‘এ’ ক্রিকেটে ৩০৯ ম্যাচের ২৭৮ ইনিংসে ব্যাট করে রান করেছিলেন ৬ হাজার ৮৪৪। ৮টি সেঞ্চুরি আর ৩৪টি হাফ সেঞ্চুরির মাঝে সর্বোচ্চ ইনিংস ছিল অপরাজিত ১৭০। টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেছিলেন ৬৩টি। রান করেছিলেন ১ হাজার ৩৬৭। ৭৪ রানের ইনিংস ছিল তার সর্বোচ্চ। ২০১৩ সালে তিনি সব ধরনের ক্রিকেট থেকে অবসর নেন। এরপর জড়িত হন কোচিংয়ে।

এইচপি দলের দায়িত্ব নেওয়ার আগে হেম্প পাকিস্তান নারী দলের প্রধান কোচের হয়ে দায়িত্ব পালন করেছেন। এইচপি ক্যাম্পে তিনি প্রধান কোচের পাশাপাশি ব্যাটিং কোচ হিসেবেও দায়িত্ব পালন করবেন। তাকে সহায়তা করার জন্য বোালিং কোচ হিসেবে ডলার মাহমুদ, ফিল্ডিং ও উইকেটকিপিং কোচ হিসেবে গোলাম মোর্তজা দায়িত্ব পালন করবেন। জাতীয় দলের সাবেক কম্পিউটার অ্যানালাইসিস্ট নাসির আহমেদ নাসুও থাকবেন এই কাজে। এ ছাড়া তুষার কান্তি হাওলাদার ট্রেনার, খাদেমুল ইসলাম শাওন ফিজিও কো-অর্ডিনেটর, খায়রুল ইসলাম ফিজিও। মনোবিদ হিসেবে থাকছেন ডেভিড স্কট।

মঙ্গলবার রাতে বাংলাদেশ এসে বুধবার সকালেই ডেভিড হেম্প নেমে পড়েন কাজে। মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে আসার পর তিনি এইচপি ইউনিটের প্রধান বিসিবি পরিচালক নাঈমর রহমান দূর্জয়ের (এমপি) সঙ্গে মিটিং করেন। পরে পরিচিত হন খেলোয়াড়দের সঙ্গে। এসময় সেখানে উপস্থিত ছিলেন বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দিন চৌধুরী সুজন, প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু, নির্বাচক কমিটির সদস্য হাবিবুল বাশার সুমন।

প্রথম দিনের কোচিং শেষে গণমাধ্যমে কথা বলতে এসে ডেভিড হেম্প বলেন, ‘আমরা এখানে এমন একটা প্ল্যাটফর্ম তৈরি করে দিচ্ছি, যেখানে খেলোয়াড়রা শিখতে শিখতে যাবে পরের ধাপে। যাতে তারা একটা পর্যায়ে গিয়ে জাতীয় দলে ভূমিকা রাখতে পারে। আমরা তাদের সেই লক্ষ্য পূরণে কাজ করে যাচ্ছি। আমরা বাংলাদেশের ক্রিকেটকে শক্তিশালী করতে ভূমিকা রাখতে চাই। বাড়াতে চাই গভীরতা।’

ডেবিড হেম্প চান খেলোয়াড়দের এমনভাবে গড়ে তুলতে, যাতে করে তারা বিশ্বের সব কন্ডিশনের সঙ্গে নিজেদের মানিযে নিতে পারে। তিনি বলেন, ‘আমরা ক্রিকেটারদের এমনভাবে প্রস্তুত করব, যাতে করে তারা বিশ্বের যেকোনো কন্ডিশনের সঙ্গে মানিয়ে নিতে পারে। খেলতে পারে।’

তিনি চান জাতীয় দলের প্রধান কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহের চাহিদা মাফিক খেলোয়াড় তৈরি করতে। হেম্প বলেন, ‘আমরা দেখব জাতীয় দলের প্রধান কোচ চন্ডিকা কী রকম খেলোয়াড় চাচ্ছেন, স্কিলের কমতি আছে কি না। এজন্য তাদের এই ক্যাম্পে নেওয়া হয়েছে।’

ডেবিড হেম্প ২৫ জনের খেলোয়াড় পেয়েছেন সব ধরনের। এখানে যেমন তরুণ ক্রিকেটার আছে, তেমনি জাতীয় দলে খেলা খেলোয়াড়ও আছে। তিনি বলেন, ‘এখানে অনেক সমন্বয় করতে হবে। এই দলের অনেকে জাতীয় দলে খেলে কিংবা খেলেছে। ৮-৯ জন খেলছে ‘এ’ দলে। এখানে মূল পার্থক্য হচ্ছে বয়সের। আমরা পেয়েছি তরুণ গ্রুপটাকে। আশা করি তাদের দ্রুত উপরের দিকে নিতে পারব।’

তিনি বলেন, ‘যদি সম্ভব হয় তাহলে যেন আমি জাতীয় দলে তরুণ ক্রিকেটারদের দিতে পারি। কিংবা নির্বাচকরা যাতে করে তাদের দিকে দৃষ্টি দিতে পারেন, সে রকম পর্যায়ে নিয়ে যাওয়া।’

বাংলাদেশে আসার আগে ডেভিড হেম্প চন্ডিকা হাথুরুসিংহের সঙ্গে কথা বলেছেন কয়েকমাস আগে। সিডন্সের সঙ্গে তার কথা হয়নি এখনো। শিগগির তার সঙ্গে তিনি কথা বলবেন বলে জানান। হেম্প চান তিন ফরম্যাটের ক্রিকেটেই বাংলাদেশকে র‌্যাঙ্কিংয়ের উপরের দিকে নিয়ে যেতে। একই সঙ্গে তার ইচ্ছে র‌্যাঙ্কিংয়ের সেরা দশে বাংলাদেশের কয়েকজন ক্রিকেটারকে দেখতে।

এমপি/এসজি

দুই দিন বাড়ল বইমেলার সময়

ছবি: সংগৃহীত

অমর একুশে বইমেলা-২০২৪ এর সময় আরও দুই দিন বাড়ানো হয়েছে। মেলা চলবে আগামী ২ মার্চ (শনিবার) পর্যন্ত।

মঙ্গলবার সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের সচিব খলিল আহমদের বরাতে মেলা পরিচালনা কমিটির সদস্য ও আগামী প্রকাশনীর প্রকাশক ওসমান গনি বিষয়টি সংবাদ মাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, মেলা দুই দিন বৃদ্ধির কথা সংস্কৃতি সচিব জানিয়েছেন। কালকে চিঠি পাঠাবেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বইমেলার সময়সীমা দুদিন বাড়ানোর আবেদনে অনুমোদন দিয়েছেন। তাই বইমেলা চলবে আগামী ২ মার্চ পর্যন্ত।

বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক মুহাম্মদ নুরুল হুদা রাত ৯টায় বইমেলায় ঘোষণা কেন্দ্র থেকেও বইমেলার মেয়াদ বাড়ানো ঘোষণা দেন। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর সদয় সম্মতিক্রমে বই মেলা দুই দিন বাড়ানো হয়েছে।

এর আগে ১৮ ফেব্রুয়ারি একুশে বইমেলার সময় দুদিন বাড়ানোর জন্য বাংলা একাডেমিকে চিঠি দেয় বাংলাদেশ পুস্তক প্রকাশক বিক্রেতা সমিতি।

অশ্লীল অঙ্গভঙ্গির কারণে নিষেধাজ্ঞার মুখে রোনালদো

ছবি: সংগৃহীত

রিয়াদ ডার্বিতে অনুষ্ঠিত সৌদি প্রো লিগে আল শাবাবকে ৩-২ গোলে হারায় ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর আল নাসর। এই ম্যাচে গোলের দেখা পান রোনালদো। ক্লাব ফুটবল ক্যারিয়ারে ৭৫০ তম গোলের মাইলফলকও স্পর্শ করেন তিনি। তবে মাইলফলকের ম্যাচে অশালীন অঙ্গভঙ্গি করে খবরের শিরোনাম হন রোনালদো। অশ্লীল অঙ্গভঙ্গি করায় নিষেধাজ্ঞার শঙ্কায় পড়েছেন পাঁচবারে ব্যালন ডি'অর জয়ী এই ফুটবলার।

সৌদি সংবাদমাধ্যমের বরাত দিয়ে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম ডেইলি মেইল অনলাইন জানিয়েছে, দৃষ্টিকটু আচরণের জন্য দুই ম্যাচ নিষেধাজ্ঞার পাশাপাশি জরিমানাও দিতে হতে পারে রোনালদোকে।

রোববার রাতে আল শাবাবের বিপক্ষে ৩-২ গোলের ব্যবধানে জয় পায় আল নাসর। ম্যাচের ২১ মিনিটে স্পটকিক থেকে ক্লাব ফুটবল ক্যারিয়ারে ৭৫০তম গোলের মাইলফলক স্পর্শ করেন রোনালদো। ম্যাচ শেষে আল শাবাবের সমর্থকরা 'মেসি, মেসি' বলে স্লোগান দিতে থাকেন। আর এতেই মেজাজ হারিয়ে ফেলেন সিআরসেভেন।

এই সময় কানের পেছনে হাত নিয়ে সেই স্লোগান শুনছেন এমন ভঙ্গি করেন রোনালদো। এরপর আল শাবাব সমর্থকদের উদ্দেশ্য করে অশ্লীল অঙ্গভঙ্গি করেই জয় উদযাপন করেন তিনি। এর আগেও এমন ঘটনা ঘটিয়েছেন রোনালদো।

গত ৯ ফেব্রুয়ারি আল হিলালের বিপক্ষে এক প্রীতি ম্যাচে ২-০ গোলে হারের পর বাজে অঙ্গভঙ্গি করেছিলেন রোনালদো। ম্যাচ শেষে টানেলে ফেরার পর 'মেসি, মেসি' স্লোগান দিয়ে রোনালদোর দিকে স্কার্ফ ছুঁড়ে দেন আল হিলাল সমর্থকরা। সেই স্কার্ফ তুলে নিজের শর্টসের মধ্যে ঢুকিয়ে তা ফেলে দেন এই পর্তুগিজ সুপারস্টার।

সৌদি আরবে একদিনে সাতজনের শিরশ্ছেদ

ছবি: সংগৃহীত

স্থানীয় সময় আজ মঙ্গলবার ‘সন্ত্রাসবাদের’ অভিযোগে সৌদি আরবে একদিনে সাতজনের শিরশ্ছেদের মাধ্যমে তাদের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হয়েছে।

২০২২ সালে একবার দেশটিতে একদিনে ৮১ জনের শিরশ্ছেদ করা হয়েছিল। ওইদিনের পর আজই আবার একদিনে সর্বোচ্চ সংখ্যক মানুষের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হলো।

সৌদির রাষ্ট্রয়ত্ত বার্তাসংস্থা সৌদি প্রেসি এজেন্সি দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বরাতে জানিয়েছে, এই সাতজন “সন্ত্রাসী সংগঠন তৈরি ও অর্থায়নের” অভিযোগে অভিযুক্ত হয়েছিলেন।

বিশ্বে মৃত্যুদণ্ড কার্যকরের দিক দিয়ে শীর্ষ তিন দেশের মধ্যে রয়েছে সৌদি আরব। এ বছর এখন পর্যন্ত দেশটিতে ২৯ জনের শিরশ্ছেদ করা হয়েছে। এর আগে ২০২৩ সালে সৌদিতে ১৭০ জনের মৃত্যুদণ্ড কার্যকরা করা হয়েছিল।

দুই বছর আগে একদিনে ৮১ জনের শিরশ্ছেদ করার পর বিশ্বজুড়ে তুমুল সমালোচনার মুখে পড়েছিল সৌদি আরব।

আজ যাদের মৃত্যুদণ্ড কার্যকরা করা হয়েছে তাদের জাতীয়তা প্রকাশ করা হয়নি। তবে তাদের নামের বিষয়টি ইঙ্গিত করছে তারা সবাই সৌদির নাগরিক ছিলেন।

সৌদি প্রেস এজেন্সির খবরে আরও বলা হয়েছে, এই সাতজন “সন্ত্রাসবাদের পথ বেঁছে নেওয়ার অভিযোগে অভিযুক্ত হয়েছেন যেটির মাধ্যমে রক্ত ঝরানোর আহ্বান জানানো হয়, তারা সন্ত্রাসী সংগঠন ও প্রতিষ্ঠান তৈরি এবং অর্থায়ন করেছিলেন এবং সমাজের শান্তি ও স্থিতিশীলতা বিনষ্টের জন্য সন্ত্রাসী সংগঠনের সঙ্গে যোগাযোগ করেছিলেন।”

তবে তারা কোন দল তৈরি করেছিলেন বা কি ধরনের সন্ত্রাসী কার্যক্রমের সঙ্গে যুক্ত হয়েছিলেন সে ব্যাপারে বিস্তারিত কোনো কিছু জানায়নি সৌদি প্রেস এজেন্সি।

সৌদির কর্তৃপক্ষের বক্তব্য হলো, আইন ও কোরআনভিত্তিক শরীয়াহ শাসন অক্ষুন্ন রাখতে মৃত্যুদণ্ড অপরিহার্য।

সর্বশেষ সংবাদ

দুই দিন বাড়ল বইমেলার সময়
অশ্লীল অঙ্গভঙ্গির কারণে নিষেধাজ্ঞার মুখে রোনালদো
সৌদি আরবে একদিনে সাতজনের শিরশ্ছেদ
আইসিইউতে তরুণীকে ধর্ষণ
বায়তুল মোকাররমে বিক্ষোভ-মিছিল নিষিদ্ধের নির্দেশ হাইকোর্টের
শিক্ষাব্যবস্থা থেকে ইসলাম-নৈতিকতাকে সরিয়ে তরুণ প্রজন্মকে ধ্বংস করা হচ্ছে : ড. মাসুদ
মালয়েশিয়ায় গাড়িচাপায় বাংলাদেশি যুবকের মৃত্যু
ধান খেতের পোকা দমনে পার্চিং উৎসব
এবার ঘুষের মামলায় নতুন করে অভিযুক্ত কারাবন্দি ইমরান খান
২৮ বছর পর যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত হত্যা মামলার পলাতক আসামি গ্রেপ্তার
দেশে খাদ্যশস্য মজুদ আছে ১৬ লাখ ৭৯ হাজার মেট্রিক টন : খাদ্যমন্ত্রী
বেঁচে আছেন ‘পঞ্চায়েত ২’ খ্যাত অভিনেত্রী আঁচল তিওয়ারি
সব বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়কে দিতে হবে ১৫ শতাংশ ট্যাক্স: আপিল বিভাগ
দেশের উন্নয়নকে আরও কাছ থেকে দেখবেন বিদেশি কূটনীতিকরা: পররাষ্ট্রমন্ত্রী
বিয়ে করে হানিমুনে জায়েদ খান !
কারও অবহেলায় এখন কিছু যায় আসে না পরীমণির
ওষুধ ও হার্টের রিংয়ের দাম কমাতেই হবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী
রমজানে দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণসহ প্রধানমন্ত্রীর ১৫ নির্দেশনা
যে কারণে ধূমপান ছেড়েছেন শহিদ কাপুর
বাড়ছে বিদ্যুৎ-গ্যাসের দাম, রমজানের আগেই কার্যকর