ইজতেমা মাঠের ফটকে লাঠি হাতে সাদপন্থীদের পাহারা

২৫ জানুয়ারি ২০২৩, ০৭:৪২ পিএম | আপডেট: ২৬ জানুয়ারি ২০২৩, ০৫:২০ পিএম


ইজতেমা মাঠের ফটকে লাঠি হাতে সাদপন্থীদের পাহারা

গাজীপুর টঙ্গী বিশ্ব ইজতেমা শেষে টঙ্গীর ইজতেমা মাঠ হস্তান্তরের কথা মাওলানা সাদ কান্ধলভির অনুসারীদের। তবে মাওলানা জুবায়েরের অনুসারীরা মাঠে ঢুকে মাঠের নিয়ন্ত্রণ নিতে পারেন, এমন আশঙ্কায় ইজতেমা মাঠের প্রতিটি ফটকে পাহারা বসিয়েছেন সাদপন্থীরা।

বুধবার (২৫ জানুয়ারি) বিকেল ৫টার মধ্যে জেলা প্রশাসনের কাছে এই মাঠ হস্তান্তরের কথা ছিল। এর আগে সকাল থেকে ইজতেমা মাঠের প্রতিটি ফটকেই অবস্থান করছেন সাদ অনুসারীদের মুসল্লিরা। প্রতিটি ফটকে ১০ থেকে ১২ জন করে মুসল্লি বাঁশ ও লাঠি নিয়ে দাঁড়িয়ে আছেন। এর মধ্যে কেউ মাঠে ঢুকতে গেলে তাদের জিজ্ঞাসাবাদের মুখে পড়তে হচ্ছে।

রোববার শেষ হয়েছে বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব। মাওলানা জুবায়েরের অনুসারীরা ইজতেমা পালন করেন ১৩ থেকে ১৫ জানুয়ারি। এরপর ১৭ জানুয়ারি প্রশাসনের কাছ থেকে মাঠ বুঝে নিয়ে দ্বিতীয় পর্বে ২০ থেকে ২৩ জানুয়ারি ইজতেমা পালন করেন মাওলানা সাদের অনুসারীরা।

সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, আজ পুনরায় জেলা প্রশাসকের কাছে তাদের মাঠ হস্তান্তরের কথা। সাদ অনুসারীদের ইজতেমা সমন্বয়কের দায়িত্বে থাকা মো. সায়েম গণমাধ্যমকে বলেন, বুধবার বিকেল ৫টা পর্যন্ত মাঠের দায়িত্ব আমাদের। সে জন্য আমাদের সাথিরাও অনেকে মাঠে অবস্থান করছেন। কিন্তু এর মধ্যেই আজ সকালে জুবায়ের অনুসারীদের কিছু লোক মাঠে ঢুকে মাঠ নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করেন।

পরে আমাদের লোকজন কোনো প্রকার বিশৃঙ্খলায় না গিয়ে প্রশাসনের সহায়তায় তাদের বুঝিয়ে সেখান থেকে ফেরত পাঠিয়েছেন। কিন্তু তারা আবার আসতে পারেন বা বিশৃঙ্খলা করতে পারেন, এমন শঙ্কায় আমরা প্রতি ফটকে পাহারা বসিয়েছি।

এ ব‍্যাপারে গাজীপুর মহানগর পুলিশের সহকারী কমিশনার মো. মেহেদী হাসান গণমাধ্যমকে বলেন, যেহেতু মাঠ নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যেই বিরোধ চলমান, তাই বাড়তি সতর্কতা হিসেবে মাঠে অবস্থান করছে পুলিশ।
এএজেড


বিভাগ : সারাদেশ