শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪ | ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
Dhaka Prokash

স্বাস্থ্যের ডিডি পরিমলের বিরুদ্ধে অভিযোগের শেষ নেই

ক্ষমতার অপব্যবহার করে অনিয়ম-দুর্নীতি ও অধীনস্ত কর্মচারীদের সঙ্গে স্বেচ্ছাচারী আচরণের অভিযোগ উঠেছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের এক কর্মকর্তার বিরুদ্ধে। শুধু তাই নয়, কমিশন বাণিজ্য, অধিদপ্তরের আওতাধীন সারাদেশের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের জিম্মি করে অর্থ আদায়, অদক্ষতার কারণে মামলার দীর্ঘসূত্রিতা ও আদালত অবমাননার মত ঘটনাও এই কর্মকর্তার দ্বারা ঘটছে। তার হুমকি-ধমকিতে সাধারণ কর্মচারীরা সব সময় অভ্যন্তরীণ বদলি ও নানা ধরনের শাস্তির আতঙ্কে তটস্থ থাকেন।

এতো অভিযোগ যার বিরুদ্ধে তিনি হলেন ডা. পরিমল কুমার পাল। তিনি স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের আইন শাখায় কর্মরত উপ-পরিচালক (ডিডি)। যদিও ওই শাখায় উপ-পরিচালকের কোনো পদ নেই। তবুও, ওএসডি হয়ে প্রায় বছরখানেক ধরে তিনি শাখাটির সবকিছু নিয়ন্ত্রণ করছেন।

তার কর্মকাণ্ডে অতিষ্ঠ কর্মকর্তা-কর্মচারীরা কর্তৃপক্ষের কাছে নানাভাবে অভিযোগ জানালেও মেলেনি কোনো সুফল। উপায়ন্তর না পেয়ে ভুক্তভোগীরা বাধ্য হয়ে স্বাস্থ্য মন্ত্রী, দুর্নীতি দমন কমিশন ও স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের সচিব বরাবর লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।

লিখিত অভিযোগে বলা হয়েছে, উপ-পরিচালক ডা. পরিমল কুমার পাল আইন শাখায় সংযুক্তিতে কর্মরত থেকে দুর্নীতি ও কমিশন বাণিজ্যের মহোৎসবে মেতেছেন। তার এ সব অপকর্ম যাতে ফাঁস না হয় সে জন্য তার একান্ত বিশ্বস্ত কর্মচারী ছাড়া অন্যদের দাপ্তরিক কাজ থেকে দূরে রাখেন। অথচ ওই শাখায় সংশ্লিষ্ট কাজের জন্য নিয়োগপ্রাপ্ত পদধারী কর্মকর্তা-কর্মচারী রয়েছে। তাদের কাজ থেকে বিরত রেখে উল্টো তিনি প্রতিনিয়ত তাদের সঙ্গে অসদাচরণ ও ভয়ভীতি প্রদর্শন করে থাকেন।

অভিযোগে উল্লেখ করা হয়, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের আইন শাখায় সহকারী পরিচালকের একটি পদ আছে। নিয়মানুযায়ী সকল চিঠিপত্র তার স্বাক্ষরে হওয়ার কথা। ওই পদে ডা. মো. আনোয়ার হোসেনকে পদায়ন করা হলেও তাকে কর্মহীন করে রেখে ডা. পরিমল কুমার পালই সকল চিঠিতে স্বাক্ষর করেন। উপ-পরিচালকের কোনো পদ আইন শাখায় না থাকলেও ডা. পরিমল কুমার দুর্নীতি, কমিশন বাণিজ্য, চুক্তিতে ফাইল থেকে মোটা অংকের টাকা আদায়ের জন্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালককে ভুল বুঝিয়ে নিজেকে আইনের বিষয়ে বিশেষ জ্ঞানসম্পন্ন জাহির করে আইন শাখাকে ওএসডি সংযুক্তির মাধ্যমে আঁকড়ে ধরে রেখেছেন। অথচ, আইন শাখায় আইন উপদেষ্টার একটি পদ শূন্য অবস্থায় রয়েছে। যে পদে কিছু দিন পূর্ব পর্যন্ত আইনে উচ্চতর ডিগ্রিধারী কর্মকর্তা কর্মরত ছিলেন। ডা. পরিমলের কারণে বর্তমানে আইন শাখায় দুরাবস্থা চলছে।

লিখিত অভিযোগে আরও উল্লেখ করা হয়েছে, পরিমল কুমার একজন চিকিৎসক। আইন বিষয়ে তার কোনো ধারণা ও পড়াশুনা নেই। যে কারণে না বুঝে তিনি আদালতের বিভিন্ন রায়কে ব্যাঙ্গ-বিদ্রূপ করে থাকেন। স্বাস্থ্য বিভাগের অনেক মামলায় আইন শাখার মতামত চাওয়া ফাইলগুলোর ক্ষেত্রে তিনি নেতিবাচক বক্তব্য লিখে চরম জটিলতা সৃষ্টি করে আসছেন। বিজ্ঞ প্রশাসনিক ট্রাইব্যুনালের সুস্পষ্ট নির্দেশনা রায়ে থাকা সত্ত্বেও ‘প্রশাসনিক ট্রাইব্যুনাল কোন আদালতই না’, এমন মন্তব্য করে রায় বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে ভুল ব্যাখ্যা উপস্থাপন করে দাপ্তরিক জটিলতা সৃষ্টি করে আসছেন। যার প্রেক্ষিতে অনেক মামলাই ইতোমধ্যে আদালত অবমাননার পর্যায়ে গিয়ে পৌঁছেছে।

অথচ, নীতিমালা অনুযায়ী, যে কোনো সরকারি দপ্তরের বিষয়াদি সংক্রান্ত মামলার বিচারিক কার্যক্রম পরিচালনা এবং নিষ্পত্তির বিষয়ে মহামান্য সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি কর্তৃক আদেশের মাধ্যমে সকল ক্ষমতা প্রশাসনিক ট্রাইব্যুনালে ন্যাস্ত করা হয়েছে।

অভিযোগে বলা হয়, ডা. পরিমল ইচ্ছাকৃতভাবে চলমান মামলাগুলো নিষ্পত্তির চেষ্টা করেন না। কারণ, মামলা চলতে থাকলে সরকারি আইনজীবী ও স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অপারেশনাল প্লান বরাদ্দের মাধ্যমে নিয়োগ দেওয়া ল’ ফার্মকে দেওয়া ফি’র সিংহভাগ কমিশন হিসাবে আদায় করতে পারেন। এ কারণে ল’ ফার্মের আইনজীবীরাও তাকে নিয়ে বিরক্ত। অপরদিকে খুবই গোপনীয়তা রক্ষা করে চুক্তির মাধ্যমে বিভিন্ন ফাইল থেকে মোটা অংকের টাকা নিয়ে থাকেন ডা. পরিমল।

অভিযোগে উল্লেখ আছে, ডা. পরিমল কুমার আইন শাখায় পদায়নের আগে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পার শাখায় কর্মরত ছিলেন। সেখানে চিকিৎসক বদলি ও পদায়নের ক্ষেত্রে স্বাচিপ এবং বিএমএ’র নেতাদের সুপারিশ না শুনে যাদের কাছ থেকে টাকা পেতেন, তাদের পদায়ন করতেন। এই অবৈধ বাণিজ্যের কারণে ক্ষিপ্ত হয়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের কিছু চিকিৎসক তাকে মারধরের জন্য ধাওয়া করে। তার এ সব কর্মকাণ্ডের বিষয়ে অধিদপ্তরে অভিযোগ করলে তাকে বদলি করে আইন শাখায় দেওয়া হয়। সেখানে গিয়েও অর্থের লোভে আইন শাখার কার্যক্রম ব্যাহত করছেন তিনি। সম্প্রতি ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের একজন এমএলএসএস’র মামলায় হাইকোর্ট থেকে রায় পাওয়ার পরও ডা. পরিমলকে মোটা অংকের টাকা দিতে না পারায় আইন শাখা থেকে আদালতের রায়ের বিপক্ষে মতামত দেওয়া হয়। যার প্রেক্ষিতে আদালত অবমাননার অভিযোগে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালককে আদালতে উপস্থিত হয়ে ক্ষমা চাইতে হয়েছে।

নিজের বিরুদ্ধে ওঠা এ সব অভিযোগ প্রসঙ্গে ডা. পরিমল কুমার পাল বলেন, যেসব অভিযোগের কথা বলা হয়েছে সবকিছুই উল্টো। আমি এই শাখায় থাকতেই চাই না। জোর করে থাকার তো প্রশ্নই আসে না। আমি সকল স্টাফদের আরও জোর করে কাজ করাই। মামলার কাজে আদালতের চাহিদা মত পূর্ণ সহযোগীতা দিয়ে থাকি। এখানে যে সহকারী পরিচালককে পদায়ন করা হয়েছে, তিনি যোগদানের পর থেকেই অসুস্থ। তাই তিনি অফিস করছেন না। কোনো মামলা, কর্মচারী কিংবা আইনজীবীদের কাছ থেকে কমিশন নেওয়ার কথা পুরোপুরি ভিত্তিহীন। আমি এক কাপ চা-ও কারো কাছ থেকে খাই না। চেষ্টা করি যত দ্রুত সম্ভব মামলা নিষ্পত্তি করার।

এনএইচবি/আরএ/

Header Ad

সবার শেষে বিশ্বকাপের দল ঘোষণা করল পাকিস্তান

ছবি: সংগৃহীত

আর মাত্র ৯ দিন পর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। বিশ্ব আসরের জন্য বেশিরভাগ দেশই নিজেদের স্কোয়াড ঘোষণা করেছে মাসখানেক আগে। এক্ষেত্রে একমাত্র ব্যতিক্রম পাকিস্তান। একেবারে শেষ মুহূর্তে এসে নিজেদের বিশ্বকাপ দল ঘোষণা করেছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড।

শুক্রবার (২৪ মে) আনুষ্ঠানিকভাবে ১৫ সদস্যের বিশ্বকাপের স্কোয়াড ঘোষণা করেছে পিসিবি। দলের নেতৃত্ব দেয়া হয়েছে নিয়মিত অধিনায়ক বাবর আজমের কাঁধে। ওয়ানডে বিশ্বকাপে অধিনায়কত্ব হারানো এই ক্রিকেটার সম্প্রতি নেতৃত্ব ফিরে পেয়েছেন।

১৫ সদস্যের পাকিস্তান দলে তেমন কোনো চমক নেই। মোটামুটি প্রত্যাশিত দল নিয়েই বিশ্ব আসরে যাচ্ছে টুর্নামেন্টের ২০০৯ সালের চ্যাম্পিয়নরা। টপ অর্ডার ব্যাটিংয়ে বাবরের সঙ্গে থাকছেন ফখর জামান, মোহাম্মদ রিজওয়ান এবং সাইম আইয়ুব।

মিডল অর্ডারে থাকবেন ফখর জামান, ইফতিখার আহমেদ, শাদাব খান এবং আজম খান। লোয়ার অর্ডারে পিসিবি ভরসা রেখেছে দুই অলরাউন্ডার শাহিন শাহ আফ্রিদি এবং ইমাদ ওয়াসিমের ওপর।

পেস বোলিংয়ে বিশ্বের অন্যতম সেরা দল হিসেবে পরিচিত পাকিস্তান। এবারের বিশ্বকাপেও দেখা যাবে তাদের শক্তিশালী পেস বোলিং ইউনিট। অবসর ভেঙে ফেরা মোহাম্মদ আমিরের সঙ্গে থাকবেন শাহিন আফ্রদি, নাসিম শাহ, হারিস রউফ এবং আব্বাস আফ্রিদি। স্পেশালিষ্ট লেগ স্পিনার হিসেবে দলে আছেন উসমান খান।

আগামী ২ জুন থেকে যুক্তরাষ্ট্র ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের মাটিতে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের নবম আসর শুরু হবে। ২৫ মে স্কোয়াড চূড়ান্ত করার শেষ দিন। তার আগেরদিনই জরুরি বৈঠকের পর পাকিস্তান স্কোয়াড ঘোষণা করেছে। এর আগে অবশ্য এ নিয়ে কম নাটকীয়তা হয়নি। আগামী ৭ জুন নিজেদের প্রথম ম্যাচে স্বাগতিক যুক্তরাষ্ট্রের বিপক্ষে খেলবে বাবরের দল। এরপর ৯ জুন চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারত, ১২ জুন কানাডা ও ১৬ জুন আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে গ্রুপপর্বে পাকিস্তানের শেষ ম্যাচ।

বিশ্বকাপে পাকিস্তানের স্কোয়াড: বাবর আজম (অধিনায়ক), আবরার আহমেদ, আজম খান, ফখর জামান, হারিস রউফ, ইফতেখার আহমেদ, ইমাদ ওয়াসিম, মোহাম্মদ আব্বাস আফ্রিদি, মোহাম্মদ আমির, মোহাম্মদ রিজওয়ান, নাসিম শাহ, সাইম আইয়ুব, শাদাব খান, শাহিন শাহ আফ্রিদি, উসমান খান।

সেপটিক ট্যাংক থেকে ৪০ হাজার ডলার উদ্ধার

ছবি: সংগৃহীত

ইলেকট্রিক মিস্ত্রির কাজ করতে গিয়ে ৪০ হাজার ডলার চুরি করে নিজ গ্রামে পালিয়ে গিয়েও বাঁচতে পারল না চোর। সেপটিক ট্যাংক থেকে সেই ডলার উদ্ধার করে পুলিশ।

শুক্রবার (২৪ মে) সকালে অভিযান চালিয়ে ভাঙ্গা পৌরসভার রায়পাড়া সদরদী গ্রামের চোর মেহেদী হাসান তামিম (২৭) এর বাড়ির সেপটিক ট্যাংক থেকে ডলারগুলো উদ্ধার করে থানা পুলিশ।

মেহেদী হাসান তামিম (২৭) সদরদী গ্রামের মৃত আলতাফ কাজীর ছেলে। এ ঘটনায় চোরের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে।

ভাঙ্গা থানার এসআই মনির হোসেন জানান, আসামি মেহেদী হাসান তামিম ঢাকায় ইলেকট্রিক মিস্ত্রির কাজ করতেন। বুধবার বসুন্ধরা গ্রুপের ইঞ্জিনিয়ার এসএম তৌহিদুজ্জামানের বাসায় বিদ্যুতের কাজ করতে যায় তামিম। কাজ করার এক ফাঁকে ইঞ্জিনিয়ারের ছোট ভাই অস্ট্রেলিয়া পাঠানোর জন্য বাসায় রাখা ছিল ৪০ হাজার ডলার, যা টাকার অংকে দাঁড়ায় প্রায় ৪৭ লাখ টাকা। তামিম কাজ করার ফাঁকে কৌশলে ৪০ হাজার ডলার নিয়ে গ্রামের বাড়ি ভাঙ্গায় পালিয়ে আসেন। পরে তৌহিদুজ্জামানের লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে শুক্রবার সকালে তামিমের বাড়ি রায়পাড়া অভিযান চালিয়ে মেহেদী হাসান তামিমকে আটক করা হয়। তার দেওয়া তথ্যমতে, বাড়ির সেপটিক ট্যাংকের মধ্যে লুকিয়ে রাখা ৩৬ হাজার ২০০ ডলার উদ্ধার করা হয়। আসামির বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

টাঙ্গাইলে আ.লীগ নেতার উপর হামলা ও গাড়ি ভাঙচুরের অভিযোগ

ছবি : ঢাকাপ্রকাশ

টাঙ্গাইলের কালিহাতীতে এমএ মালেক ভূইয়া নামে এক আওয়ামী লীগ নেতার উপর হামলা ও তার গাড়ি ভাঙচুর করার অভিযোগ উঠেছে নবনির্বাচিত উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শামীম আল মনসুর আজাদ সিদ্দিকীর লোকজনের বিরুদ্ধে।

এমএ মালেক ভূইয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি ও উপজেলার দশকিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান।

শুক্রবার (২৪ মে) বিকালে উপজেলা শহরের হাসপাতাল মোড়ে এ ঘটনা ঘটে। এদিকে, ঘটনার পর পরই প্রতিবাদে ঢাকা-টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়কের এলেঙ্গা বাসস্ট্যান্ডে মহাসড়ক অবরোধ করেন আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা। পরে পুলিশের আশ্বাসে অবরোধ তুলে নেওয়া হয়।

স্থানীয়রা জানান, নবনির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান শামীম আল মনসুর আজাদ সিদ্দিকীর পক্ষে বিজয় মিছিলের প্রস্তুতি নেয় তার অনুসারীরা। অপরদিকে, সাবেক সংসদ সদস্য হাসান ইমাম খান সোহেল হাজারী তার বাসায় একটি মিটিংয়ের আয়োজন করেন। সেই অনুষ্ঠানে যাওয়ার সময় কালিহাতী হাসপাতাল মোড়ে এমএ মালেক ভূইয়ার গাড়িতে হামলা চালায় সংঘবদ্ধ একটি গ্রুপ।

হামলার শিকার এমএ মালেক ভূইয়া বলেন, সাবেক এমপি সোহেল হাজারীর বাসায় যাওয়ার সময় আমার গাড়িতে অতর্কিত হামলা চালিয়ে ভাঙচুর করে কয়েকজন লোক। এ সময় আমি ও আমার গাড়ি চালক গুরুতর আহত হই। নবনির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান আজাদ সিদ্দিকীর লোকজন এ হামলা করেছে। এতে আওয়ামী লীগের আরও কয়েকজন নেতাকর্মী আহত হয়েছেন।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে পরাজিত চেয়ারম্যান প্রার্থী আনোয়ার হোসেন মোল্লা বলেন- নির্বাচনের পর থেকে কয়েকদিনে বেশ কয়েকজন আওয়ামী লীগের নেতাকর্মী হামলার শিকার হয়েছেন। আওয়ামী লীগ নেতা মালেক ভূইয়ার ন্যাক্কারজনক উপর হামলার প্রতিবাদে নেতাকর্মীরা এলেঙ্গা মহাসড়ক প্রায় আধা ঘন্টা অবরোধ করে রাখেন।

এরপর পুলিশের উর্ধতন কর্মকর্তারা এসে বিচারের আশ্বাস দিলে অবরোধ তুলে নেওয়া হয়। তিনি এ হামলার জন্য স্থানীয় এমপি আব্দুল লতিফ সিদ্দিকীর ছোট ভাই ও নবনির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান আজাদ সিদ্দিকীর বাহিনীকে দায়ী করেছেন।

এ ব্যাপারে নবনির্বাচিত উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শামীম আল মনসুর আজাদ সিদ্দিকী বলেন, আমাদের বিজয় মিছিলে কতিপয় দুষ্কৃতিকারী হামলা চালায়। এতে আমার কয়েকজন কর্মী আহত হয়েছেন। আমি পুলিশ প্রশাসনের কাছে এর সুষ্ঠু বিচার চাই।

কালিহাতী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কামরুল ফারুক বলেন, নব‌নির্বা‌চিত উপ‌জেলা চেয়ারম‌্যান আজাদ সিদ্দিকীর বিজয় মিছিল নিয়ে আসার সময় উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মালেক ভূইয়ার উপর হামলা করে অজ্ঞাতরা। এ সময় গাড়ি ভাঙচুর করে। এখনো লিখিত অভিযোগ পায়নি। অ‌ভি‌যোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সর্বশেষ সংবাদ

সবার শেষে বিশ্বকাপের দল ঘোষণা করল পাকিস্তান
সেপটিক ট্যাংক থেকে ৪০ হাজার ডলার উদ্ধার
টাঙ্গাইলে আ.লীগ নেতার উপর হামলা ও গাড়ি ভাঙচুরের অভিযোগ
কঠিন হয়ে গেল দুবাই ভ্রমণ, ভিজিট ভিসায় প্রবেশে নতুন শর্ত
কখন কোথায় আঘাত হানতে পারে ‘ঘূর্ণিঝড়’ রেমাল
জাভিকে বরখাস্ত করলো বার্সেলোনা
গোবিন্দগঞ্জে ২ হাজার পিস বুফ্রেনরফিন ইনজেকশন উদ্ধার
সৌদি পৌঁছেছেন প্রায় ৩৯ হাজার হজযাত্রী
রাজনীতিতে আসার ইঙ্গিত দিলেন আনারকন্যা ডরিন
আজিজ ও বেনজীরের দুর্নীতির দায় সরকার এড়াতে পারে না: দুদু
ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে রাতে মাঠে নামছে হায়দরাবাদ-রাজস্থান
এমপি আনার হত্যা: ১২ দিনের রিমান্ডে কসাই জিহাদ
মারা গেছে মিমস জগতের জনপ্রিয় কুকুরটি
ফিক্সিং প্রমাণিত হলে ১০ বছর নিষিদ্ধ পাকুয়েতা!
নিম্নচাপে পরিণত সাগরের লঘুচাপ, বন্দরে সতর্কতা জারি
নওগাঁয় ভুয়া ডাক্তারকে অর্ধলক্ষ টাকা জরিমানা ও ৩ মাসের জেল
আনারের মরদেহ টুকরো টুকরো করে কাটার লোমহর্ষক বর্ণনা দিলেন ‘কসাই’ জিহাদ
এমপি আনারকে হত্যার বিষয়ে যা জানালেন মাস্টারমাইন্ড শাহীন
এমপি আনারের টুকরো টুকরো লাশের সন্ধান দিল গাড়িচালক
নিয়ামতপুর, পোরশা ও সাপাহারে ৪৬ প্রার্থীর ২৫ জনেই জামানত হারালেন