চেন্নাইয়ের সিমস হাসপাতাল চালু করলো ‘রোবোটিক সার্জারি’র হেল্পলাইন

২০ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৯:২২ পিএম | আপডেট: ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৮:৫৩ পিএম


চেন্নাইয়ের সিমস হাসপাতাল চালু করলো ‘রোবোটিক সার্জারি’র হেল্পলাইন

‘+৮৮০ ১৯৬৬-৬৩৮৬১০’ সার্বক্ষণিক সাহায্য নাম্বারটি থেকে স্বল্প ব্যয়ে অত্যাধুনিক রোবোটিক সার্জারির অনন্য চিকিৎসা সুবিধা বাংলাদেশের রোগীদের কাছে পৌঁছে দিচ্ছে ভারতের শীর্ষস্থানীয় স্বাস্থ্য সেবাদাতা চেন্নাইয়ের ‌সিমস হাসপাতাল। তাদের এটি জরুরি হেল্পলাইন নাম্বারও।

ঢাকার জাতীয় প্রেসক্লাবের ভিআইপি অডিটোয়ামে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে আনুষ্ঠানিকভাবে হেল্পলাইনটি চালু করেছেন তারা। ১৮ সেপ্টেম্বর, রবিবার সকাল সাড়ে ১০ টা থেকে। এই ‘রোবোটিক সার্জারি হেল্পলাইন নাম্বার’টির উদ্বোধনী আয়োজনে সবাইকে স্বাগতও জানিয়েছেন সিমস হাসপাতালের ইনস্টিটিউট অব রেনাল সাইন্স অ্যান্ড ট্রান্সপ্ল্যান্টেশন (আইআরএসটি)’র ইউরোলজি বিভাগের পরিচালক ও সিনিয়র কনসালট্যান্ট ডা. মুথু ভিরামাণি।

তিনি রোবট নিয়ন্ত্রিত সার্জারি খাতে অর্জিত তাদের বিভিন্ন অগ্রগতি সহজ ইংরেজি ভাষায় ও অনুবাদকের সাহায্যে তুলে ধরেছেন।

রোবোটিক সার্জারির সুবিধাগুলো ব্যাখ্যা করেছেন তিনি, ‘রোবটের সাহায্যে আপারেশনের ফলে রোগীকে আগের তুলনায় অনেক কম সময় আমাদের হাসপাতালে থাকতে হবে। অস্বস্তি ও ব্যথা কম হবে। দ্রুততর হবে আরোগ্য। কাটা, ছোঁড়া, দাগ নিয়ে অল্প ভোগান্তি সইতে হবে রোগীকে।’

অতিথিদের সামনে রোবোটিক সার্জারির দক্ষতা ও সুবিধা বিশদভাবে তুলে ধরেছেন অধ্যাপক ডা. মুথু ভিরামাণি। তিনি ভিডিও ক্লিপও প্রদর্শন করেছেন। তাতে জানা গিয়েছে, ভারতের তামিল নাড়ু প্রদেশের রাজধানী চেন্নাইয়ের নামকরা এই সিমস হাসপাতালে কীভাবে সুদক্ষ ও অভিজ্ঞ সার্জনদের সহায়তা ও পরিচালনায় তুলনামূলকভাবে নির্ভুল, নিখুঁত উপায়ে রোবোটিক হাতগুলোতে সফলভাবে রোগীর সার্জারি করছে।

ডা. ভিরামাণি আরো জানিয়েছেন, ‘রোবোটিকভাবে সর্বনিম্ন উপায়ে মানব দেহে সার্জারি অপারেশনে দক্ষ সার্জনের অভিজ্ঞতা ও অত্যাধুনিক কম্পিউটারের দক্ষতার সমম্বয় ঘটানো হয়। সাধারণ থেকে জটিল-সব ধরনের সার্জারি আরো নিয়ন্ত্রিত, নির্ভুল ও নিখুঁতভাবে সম্পন্ন করা সম্ভব হয়।’

এ সময় নিজের হাতে এ পর্যন্ত বাংলাদেশের সহস্রাধিক রোগীর চিকিৎসা প্রদানের অভিজ্ঞতা জানিয়েছেন ভারতের প্রখ্যাত এই সার্জন।

প্রশ্নোত্তর পর্বে শ্রোতাদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দিয়েছেন চেন্নাইয়ের নামী সার্জন ডা. ভিরামাণি।

নির্ভুল ও সাশ্রয়ী চিকিৎসা সেবা নিশ্চিত করার মানসে মানবিক হাতের প্রথাগত সীমাবদ্ধতা অতিক্রম করেছে সিমস হাসপাতাল, জানিয়েছেন তারা।

বর্তমানে ইউরোলজি, গাইনোকোলজি, সার্জিক্যাল গ্যাস্ট্রো-এন্টারোলজি, সার্জিক্যাল অনকোলজি ও জেনারেল সার্জারিতে প্রয়োগ করা হচ্ছে রোবোটিক সার্জারি।

৩৪৫ শয্যার সিমস হাসপাতালে আছে একাধিক অঙ্গপ্রত্যঙ্গ প্রতিস্থাপন সেন্টার।

একটি ছাদের নিচেই রয়েছে ১৫টি মডিউলার অপারেশন থিয়েটার।

৩টি অত্যাধুনিক ক্যাথ ল্যাব আছে।

হেপা-ফিল্টারসমৃদ্ধ অত্যাধুনিক আইসিইউসহ চিকিৎসা প্রযুক্তির সর্ববিধ সুবিধা আছে তাদের।

ওএফএস।


বিভাগ : স্বাস্থ্য