ক্যালসিয়াম-প্রোটিনের বড় উৎস টোফু

১৪ নভেম্বর ২০২২, ১০:৫৮ এএম | আপডেট: ০৩ ডিসেম্বর ২০২২, ০৯:৪১ এএম


ক্যালসিয়াম-প্রোটিনের বড় উৎস টোফু

ক্যালসিয়াম ও প্রোটিনের বড় উৎস টোফু। এটি মূলত সয়া পনির। দেখতে অনেকটা পনিরের মতো হলেও এই দুই খাবারের মধ্যে পার্থক্য রয়েছে। টোফু খুবই স্বাস্থ্যকর একটি খাবার। এটি অ্যামিনো অ্যাসিড, লৌহ, ক্যালসিয়াম ও অন্যান্য ট্রেস উপাদানগুলির একটি চমৎকার উৎস। পনিরের চেয়ে টোফুতে কম ক্যালোরি থাকে। এটি ল্যাকটোজ অসহিষ্ণু ব্যক্তিদের জন্য উপকারী। টোফু আইসোফ্লাভোনের একটি সমৃদ্ধ উৎস, যা বিভিন্ন রোগের ঝুঁকি কমাতে পরিচিত। এ ছাড়া আইসোফ্লাভোন সমৃদ্ধ খাবার খাওয়া অস্টিওপোরোসিস, হৃদরোগ এবং কিছু ধরনের ক্যান্সারের ঝুঁকি কমায়।

এই পনির থাই, জাপানি ও চীনা খাবারের একটি প্রধান খাদ্য। এটি তৈরি করা হয় তাজা সয়া দুধকে ঘন করে, এটি একটি কঠিন ব্লকে চেপে এবং তারপর ঠান্ডা করা হয়। উত্পাদন পদ্ধতি ও ধারাবাহিকতার স্তর অনুসারে টোফুর তিনটি প্রধান প্রকার রয়েছে।

খাওয়ার পদ্ধতি
টোফুর নিজস্ব গন্ধ নেই, তাই টক দই, সয়াসস ও মসলা দিয়ে ম্যারিনেট করে রান্না করে খাওয়া হয় টোফু। এ ছাড়া ফুলকপি, ব্রোকলি, ক্যাপসিকামসহ নানা সবজি দিয়ে রান্না করেও খাওয়া যায়। আবার এটি বেকিং, গ্রিলিং ও রোস্টিংয়ের করেও খাওয়া যায়। আর নরম টোফু সস, ডেজার্ট, ককটেল ও সালাদের সঙ্গে খাওয়া যায়।

সতর্কতা
টোফু ও সমস্ত সয়া পণ্যে অক্সালেট বেশি থাকে। যাদের অক্সালেট কিডনিতে পাথর হওয়ার প্রবণতা রয়েছে তাদের সয়া জাতীয় খাবারের অত্যধিক ব্যবহার এড়ানো উচিত। সয়াতে ফাইটোহোরমোনস রয়েছে, এর একটি অতিরিক্ত পরিমাণে এন্ডোক্রাইন সিস্টেমের ক্ষতি হতে পারে। একই কারণে, গর্ভবতী নারীদের সাবধানতার সঙ্গে পণ্যটি খাওয়া উচিত। বেশি পরিমাণে টোফু ডায়রিয়ার কারণ হতে পারে। আপনি যদি সয়াতে অসহিষ্ণু হোন তবে টোফুও খাওয়া উচিত নয়।

সংরক্ষণ পদ্ধতি
টোফু এয়ারটাইট প্রাকেটজাত করে বিক্রি করা হয়। যা ঘরের তাপমাত্রায় রাখা যায়। প্যাকেট না খোলা পর্যন্ত ফ্রিজে প্রয়োজন হয় না। খোলার পরে, সয়া পনির ধুয়ে ফেলতে হবে এবং ফ্রিজে সংরক্ষণ করতে হবে। এক সপ্তাহের জন্য টোফ তাজা রাখতে, ঘন ঘন পানি পরিবর্তন করা উচিত। পাঁচ মাস পর্যন্ত তার মূল প্যাকেজিংয়ে হিমায়িত থাকতে পারে।

এসএন