বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ | ৮ ফাল্গুন ১৪৩০
বেটা ভার্সন
Dhaka Prokash

জীবিত থাকতে নিজের কবরের জায়গা নির্ধারণ করা যাবে কি ?

ছবি সংগৃহিত

মৃত্যু থেকে বাঁচার কোনো উপায় নেই। প্রত্যেক জীবকেই মৃত্যুর স্বাদ নিতে হবে। পবিত্র কোরআনে আল্লাহ তায়ালা বলেন, প্রত্যেক প্রাণীকেই মৃত্যুর স্বাদ গ্রহণ করতে হবে এবং তোমাদের সকলকে (তোমাদের কর্মের) পুরোপুরি প্রতিদান কিয়ামতের দিনই দেওয়া হবে। অতঃপর যাকেই জাহান্নাম থেকে দূরে সরিয়ে দেওয়া হবে ও জান্নাতে প্রবেশ করিয়ে দেওয়া হবে, সে-ই প্রকৃত অর্থে সফলকাম হবে। আর (জান্নাতের বিপরীতে) পার্থিব জীবন তো প্রতারণার উপকরণ ছাড়া কিছুই নয়। (সূরা আল ইমরান, আয়াত, ১৮৫)

অপর এক আয়াতে আল্লাহ তায়ালা বলেন, ‘তিনি জীবনদান করেন এবং তিনিই মৃত্যু ঘটান। আল্লাহ ছাড়া তোমাদের কোনো অভিভাবক নেই, কোনো সাহায্যকারীও নেই।’ (সূরা তাওবা, আয়াত, ১১৬)।

এক হাদিসে হজরত আয়েশা রাদিয়াল্লাহু তায়ালা আনহা ও আবদুল্লাহ ইবনে মাসউদ রাদিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু থেকে বর্ণিত আছে, তারা বলেন- ‘(হঠাৎ মৃত্যু) পাপীর জন্য আফসোস আর মুমিনের জন্য নিষ্কৃতির কারণ।’ (মুসাননাফে ইবনে আবি শায়বা : ৩/৩৭০; বায়হাকি : ৩/৩৭৯)

মৃত্যুর পর একজন মুসলিমকে যত দ্রুত সম্ভব দাফন-কাফন করাতে হয়। এক হাদিসে রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম হজরত আলী রা.-কে লক্ষ্য করে বলেন, ‘হে আলী! তিনটি জিনিসের ক্ষেত্রে বিলম্ব করবে না। ১. নামাজের যখন সময় আসবে তখন নামাজ আদায় করা থেকে দেরি করবে না। ২. মৃত ব্যক্তির জানাজা যখন উপস্থিত হবে তখন কাফন-দাফন সম্পন্ন করতে দেরি করবে না। ৩. কোন অবিবাহিতা মেয়ের জন্য যখন কোন উপযুক্ত পাত্র পাবে তখন তাকে পাত্রস্থ করা থেকে বিলম্ব করবে না।’ -(তিরমিজি ১/২০৬)

মৃত্যু পরবর্তী ধাপ কবর জীবন। অনেকেই নিজের মৃত্যু পরবর্তী বাসস্থান নিজের জীবদ্দশাতেই ঠিক করে রাখতে চান। নিজের জীবনেই কবরের জায়গা নির্ধারণ করে রাখার চেষ্টা করেন। এ ক্ষেত্রে ইসলামের দৃষ্টিভঙ্গি হলো-

যদি কোনো জায়গার জমি কবরস্থানের জন্য ওয়াকফ করে দেওয়া হয় তাহলে সেখানে কোনো ব্যক্তি বিশেষের কবরের জন্য জায়গা নির্ধারণ করার অনুমতি নেই। কারণ, ওয়াকফ করে দেওয়ার কারণে এই কবরস্থানের জায়গায় সাধারণ মানুষের অধিকার রয়েছে এবং তা জনসাধারণের কল্যাণের জন্য নির্ধারিত হয়ে গেছে। তবে কেউ নিজের মালিকানাধীন জায়গায় কবরের জন্য জায়গা নিধারর্ণ করে রাখতে চাইলে এতে কোনো সমস্যা নেই।

এভাবে মালিকানাধীন জমিতে কবরের জন্য জায়গা নির্ধারণের বিষয়টি কোনো হাদিসের মাধ্যমে প্রমাণিত নয়। তবে হজরত ওমর ইবনে আব্দুল আজিজ রহ.-এর পক্ষ থেকে এমন কাজের বিষয়টি সাব্যস্ত। তিনি মৃত্যুর আগে ১০ অথবা ২০ দিনারে নিজের কবরের জন্য জায়গা কিনেছিলেন। (সিরাতে ওমর ইবনে আব্দুল আজিজ, ৯৯, সিয়ারু আলামিন নুবালা, ৫ম খণ্ড ১৪৪, দারুল ইফতা জামিয়া উলুমে ইসলামিয়া আল্লামা ইউসুফ বানুরী টাউন)

 

 

অ্যাটলেটিকোকে হারিয়ে কোয়ার্টারের পথে এগিয়ে ইন্টার মিলান

ছবি: সংগৃহীত

চ্যাম্পিয়ন্স লিগে শেষ ষোলোর প্রথম লেগের ম্যাচে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদকে ১-০ গোলে হারিয়েছে ইন্টার মিলান। মার্কো আর্নাতোভিচের একমাত্র গোলে কোয়ার্টার ফাইনালে এক পা দিয়ে রাখল ইনজাগির দল।

মঙ্গলবার (২০ ফেব্রুয়ারি) রাতের আরেক ম্যাচে পিএসভি আইন্দহোভেনের বিপক্ষে এগিয়ে গিয়েও ১-১ গোলে ড্র করেছে বরুসিয়া ডর্টমুন্ড।

মিলানের সান সিরো স্টেডিয়ামে মঙ্গলবার রাতে শেষ ষোলোর প্রথম লেগে অ্যাটলেটিকোকে ১-০তে হারিয়েছে ইন্টার। চলতি বছরে সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে ৯ ম্যাচের সবকটিতে জয় পেল দলটি। প্রতিযোগিতামূলক ফুটবলে এ নিয়ে দ্বিতীয়বার মুখোমুখি হল দল দুটি। আগের সাক্ষাতে ২০১০ সালে উয়েফা সুপার কাপে ২-০ গোলে জিতেছিল অ্যাটলেটিকো।

গোলের জন্য অ্যাটলেটিকোর ৭ শটের মধ্যে লক্ষ্যে ছিল না একটিও। ইন্টারের ১৯ শটের ৫টিই ছিল লক্ষ্যে। ম্যাচে বদলি নামা আর্নাতোভিচের সামনে সুযোগ ছিল হ্যাটট্রিক করারও। একের পর এক দারুণ সব সুযোগ হারান অভিজ্ঞ ফরোয়ার্ড। শেষ পর্যন্ত অবশ্য ব্যবধান গড়ে দেন তিনিই।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে মাঠে নেমে দুই মিনিট পরই সুযোগ পান আর্নাতোভিচ। পোস্টের কাছ থেকে উড়িয়ে মেরে হতাশ করেন ৩৪ বর্ষী অস্ট্রিয়ান ফুটবলার। খানিক পর তার হেড লক্ষ্যে থাকেনি। ৬৩ মিনিটে আরও একটি সূবর্ণ সুযোগ নষ্ট করেন আর্নাতোভিচ। শেষপর্যন্ত ৭৯ মিনিটে জালের দেখা পায় ইন্টার। বক্সের ভেতর মার্টিনেজের থেকে বল পেয়ে জালে জড়ান এ তারকা। ১-০তে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে ইতালিয়ান ক্লাবটি।

এদিন চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শেষ ষোলোর আরেক ম্যাচে পিএসভি আইন্দহোভেনের বিপক্ষে ১-১ গোলে ড্র করেছে বরুশিয়া ডর্টমুন্ড। ২৪ মিনিটে চমৎকার গোলে বরুশিয়াকে এগিয়ে নেন ডোনিয়েল মালেন। ৫৬তম মিনিটে পেনাল্টি থেকে সমতা টানেন লুক ডি ইয়ং। ১৩ মার্চ ফিরতি লেগ।

এই গোলে এক রেকর্ডও গড়েছেন ২৫ বর্ষী মালেন। নেদারল্যান্ডসের প্রথম খেলোয়াড় হিসেবে স্বদেশি ক্লাবের বিপক্ষে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের নকআউট পর্বে গোলের কীর্তি গড়েছেন। কিন্তু মালেনের গোলটা ডর্টমুন্ডকে জেতাতে পারেনি। ম্যাটস হুমেলস বলের নিয়ন্ত্রণ নিতে গিয়ে নিজেদের বক্সে ফাউল করে বসেন পিএসভির মালিক টিলম্যানকে। ৫৬ মিনিটে সফল স্পটকিকে সমতা ফেরান পিএসভির অধিনায়ক লুক ডি ইয়ং।

রাজধানীতে সুন্নতে খতনা করাতে গিয়ে প্রাণ গেল আরেক শিশুর

ছবি: সংগৃহীত

ইউনাইটেড মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে সুন্নতে খতনা করাতে গিয়ে শিশু আয়ানের মৃত্যুর রেশ না কাটতেই এবার মালিবাগের জে এস ডায়াগনস্টিক অ্যান্ড মেডিকেল চেকআপ সেন্টারে মতিঝিল আইডিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজের এক শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়েছে।

চতুর্থ শ্রেণিতে পড়ুয়া ওই শিক্ষার্থীর নাম আহনাফ তাহমিন আয়হাম (১০)। স্বজনদের অভিযোগ, লোকাল অ্যানেস্থেসিয়া দেওয়ার কথা থাকলেও তারা ফুল অ্যানেস্থেসিয়া দিয়েছে। যে কারণে আহনাফের আর জ্ঞান ফেরেনি।

মঙ্গলবার (২০ ফেব্রুয়ারি) মালিবাগের জে এস ডায়াগনস্টিক অ্যান্ড মেডিকেল চেকআপ সেন্টারে ভুল চিকিৎসায় এ ঘটনা ঘটে এমন অভিযোগ শিশুটির পরিবার ও স্বজনদের।

সন্তানের মরদেহ জড়িয়ে ধরে মায়ের আহাজারি

 

জানা গেছে, মালিবাগের জে এস ডায়াগনস্টিক অ্যান্ড মেডিকেল চেকআপ সেন্টারে অর্থোপেডিক ও ট্রমা সার্জন ডা. এস এম মুক্তাদিরের তত্ত্বাবধানে মঙ্গলবার রাতে সন্তানকে সুন্নতে খতনা করাতে আসেন শিশু আয়হামের বাবা ফখরুল আলম ও মা খায়কুন নাহার চুমকি। রাত আটটার দিকে খৎনা করানোর জন্য অ্যানেস্থেসিয়া দেওয়ার পর আর ঘুম ভাঙেনি আহনাফের। এর ঘণ্টাখানেক পর হাসপাতালটির পক্ষ থেকে শিশুটিকে মৃত ঘোষণা করা হয়।

শিশুটির পরিবারের অভিযোগ, খতনা করাতে মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে আয়হামকে মালিবাগের ওই স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ভর্তি করানো হয়। অ্যানেসথেসিয়া দেওয়ার পর আর জ্ঞান ফেরেনি তার। লোকাল অ্যানেসথেসিয়া দেওয়ার কথা থাকলেও ফুল অ্যানেসথেসিয়া দেওয়া হয় আয়হামকে। ঘণ্টাখানেকের মধ্যে তাকে মৃত ঘোষণা করা হয়। ঘটনার পর যে চিকিৎসকের অধীনে ভর্তি করা হয়েছিল, তিনি পালিয়ে গেছেন।

আহনাফ তাহমিন আয়হাম

 

আয়হামের বাবা ফখরুল আলম বলেন, অ্যানেসথেসিয়া দিতে নিষেধ করার পরও সেটি শরীরে পুশ করেন ডাক্তার মুক্তাদির। তাঁর অভিযোগ, এই মৃত্যুর দায় মুক্তাদিরসহ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ সবার।

এদিকে খবর পেয়ে মেডিকেল সেন্টারটির দুই চিকিৎসককে গত রাতেই হাতিরঝিল থানায় নিয়েছে পুলিশ। এ বিষয়ে বুধবার সকাল সাড়ে সাতটায় হাতিরঝিল থানার উপপরিদর্শক আব্দুল কুদ্দুস বলেন, মালিবাগের জে এস ডায়াগনস্টিক অ্যান্ড মেডিকেল চেকআপ সেন্টারের শিশু মৃত্যুর ঘটনায় দুজন চিকিৎসক আটক আছেন। তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

উল্লেখ্য, গত ৮ জানুয়ারি রাজধানীর সাতারকুল বাড্ডার ইউনাইটেড মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে খৎনা করাতে গিয়ে টানা ৮ দিন লাইফ সাপোর্টে থাকা শিশু আয়ান মারা যায়।

অবশেষে সরকার গঠনে সম্মত পাকিস্তানের প্রধান দুই দল

ছবি: সংগৃহীত

অবশেষে পাকিস্তানে কেন্দ্রীয় সরকার গঠনে একমত হয়েছে পাকিস্তান মুসলিম লিগ-নওয়াজ (পিএমএল-এন) ও পাকিস্তান পিপলস পার্টি (পিপিপি)। দীর্ঘ নাটকীয়তার পর মঙ্গলবার (২০ ফেব্রুয়ারি) রাতে এ বিষয়ে আনুষ্ঠানিক চুক্তির ঘোষণা দিয়েছে তারা।

সমঝোতা অনুযায়ী, ফের পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী হবেন পিএমএল-এনের শাহবাজ শরিফ। অপরদিকে দেশটির নতুন প্রেসিডেন্ট হবেন পিপিপির আসিফ আলী জারদারি।

সরকার গঠন নিয়ে মঙ্গলবার সিনেটর ইসহাক দারের বাড়িতে রুদ্ধদ্বার বৈঠকে বসেন পিএমএল-এন এবং পিপিপির নেতারা। সেখানে জোট সরকার গঠনের বিভিন্ন শর্তগুলো নিয়ে আলোচনা করেন তারা। এরপর এ সিদ্ধান্তে উপনীত হয় এই দুই দল।

পিপিপির চেয়ার‌ম্যান বিলাওয়াল ভুট্টো নিশ্চিত করেছেন, শাহবাজ শরিফ আবারও প্রধানমন্ত্রী হবেন। অপরদিকে প্রেসিডেন্ট পদে বসবেন তার বাবা আসিফ আলী জারদারি। সরকার গঠন হওয়ার পর প্রেসিডেন্ট নির্বাচন হবে। সেখানে পিপিপির আসিফ আলী জারদারিকে ভোট দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে পিএমএল-এন।

বিলাওয়াল আরও জানিয়েছেন, শুধুমাত্র পাকিস্তানের স্থিতিশীলতার জন্য তারা জোট সরকার গঠনে সম্মত হয়েছেন। তবে নতুন সরকারের মন্ত্রীসভায় তারা কোন কোন মন্ত্রণালয়গুলো নেবেন বা পাবেন সেটি পরে জানানো হবে বলে জানিয়েছেন বিলাওয়াল।

উল্লেখ্য, গত ৮ ফেব্রুয়ারি পাকিস্তানের জাতীয় পরিষদে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। ওই নির্বানে সর্বোচ্চ ৯২টি আসন পায় পিটিআইয়ের স্বতন্ত্ররা। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৭৫টি আসন পায় পিএমএলএন। আর তৃতীয় সর্বোচ্চ ৫৪টি আসন পায় পিপিপি।

সর্বশেষ সংবাদ

অ্যাটলেটিকোকে হারিয়ে কোয়ার্টারের পথে এগিয়ে ইন্টার মিলান
রাজধানীতে সুন্নতে খতনা করাতে গিয়ে প্রাণ গেল আরেক শিশুর
অবশেষে সরকার গঠনে সম্মত পাকিস্তানের প্রধান দুই দল
ইতালি যাওয়ার পথে নৌকাডুবি, নিহত ৯ জনের মধ্যে ৫ জনই মাদারীপুরের
ভাষা শহীদদের প্রতি রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা
শহিদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস আজ
যৌন নিপীড়নের দায়ে জাবি শিক্ষক জনি স্থায়ী বরখাস্ত
পুত্র সন্তানের বাবা-মা হলেন বিরাট-আনুশকা
জামিনে মুক্ত সাংবাদিক ইলিয়াস হোসেন
যুক্তরাজ্যে ২০০ মিলিয়ন পাউন্ডের সাম্রাজ্য সাবেক ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামানের
উত্তর কোরিয়ার দেওয়া ক্ষেপণাস্ত্র ইউক্রেনে ছুড়েছে রাশিয়া
গৃহকর্মী প্রীতির মৃত্যু: সাংবাদিক আশফাকুল ও তার স্ত্রীর জামিন নামঞ্জুর
ইবনে সিনা হাসপাতালে রাশিয়ান কিশোরীর শ্লীলতাহানি, ওয়ার্ডবয় গ্রেফতার
শাহজালালের থার্ড টার্মিনাল চালুর সময় জানাল বিমানমন্ত্রী
পরীক্ষার্থীরা মুচলেকায় ছাড় পেলেও মাদরাসা প্রধানদের বিরুদ্ধে মামলার নির্দেশ
পরীমণির বিরুদ্ধে মাদক মামলার নতুন সিদ্ধান্ত আসছে
জাবিতে ভর্তি পরীক্ষা শুরু কাল, নিরাপত্তা জোরদার
বগুড়ায় মহিলা আওয়ামী লীগ কর্মীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার
বাণিজ্যমেলায় ৪০০ কোটি টাকার পণ্য বিক্রি
জীবনের প্রথম ছবি ‘চক্কর ৩০২’, পোস্টারে কে এই অভিনেতা?